সরকার ১৬ কোটি মুসলমানের কলিজায় ছুরি মেরেছে

প্রকাশ:| সোমবার, ২৪ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ০৬:২২ অপরাহ্ণ

ন্যাশনাল লেবার পার্টি-এনএলপি প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ জিয়া বলেলেন, লতিফ মুরতাদকে দেশে এনে সরকার ১৬ কোটি মুসলমানের কলিজায় ছুরি মেরেছে। গতকাল রাত ৯টার দিকে ভারতীয় বিমানে ভারতীয় নিরাপত্তায় ইসলাম বিদ্বেষী মুরতাদ লতিফ সিদ্দীকীকে বাংলাদেশে প্রবেশের সুযোগ দিয়ে সরকার দেশের মুসলমানদের বুকে ছুরি মেরে হত্যা করেছে। মুরতাদ ও মুসলমানের ঠাই একসাথে কখনও হতে পারে না। শেখ হাসিনার সরকারকে হয় ১৬ কোটি মানুষকে ভালবাসতে হবে নচেৎ এই মুরতাদকে ভালবাসতে হবে। মুরতাদ ও মুসলমানকে একসাথে ভালবাসে সে মুসলিম হতে পারে না। সে দ্বিমুখীর কারণে মুনাফিক ও মুরতাদ দুই হবে। তাই সরকার নিজেকে মুরতাদ হিসেবে প্রমান না দিতে চাইলে অচিরেই ঐ মুরতাদকে বিচারের আওতায় এনে ফাঁসি দিতে হবে। কোটি জনতার হৃদয়ে আগুন জ্বালিয়ে সরকার দেশকে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির পায়তারা করছে। তাই দেশবাসীর সাথে সাথে এনএলপি’র দাবী লতিফ সিদ্দিকীর সংসদ সদস্যপদ বাতিল করে তাকে ইসলামী ব্লাসফেমি আইনের আওতায় এনে ফাসির দন্ড দেয়া হোক। অন্যথায় যে কোন অনাকাংখিত পরিস্থিতির দায় সরকারকেই নিতে হবে।

তিনি আজ সোমবার দুপুরে এনএলপি’র পুরানা পল্টনস্থ কেন্দ্রিয় কার্যালয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে লতিফ সিদ্দিকীর ন্যায় মুরতাদকে দেশে এনে সরকার ঘৃণ্য ও জঘন্য মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন এমন কথাও বলেন।

এনএলপি’র কেন্দ্রিয় কমিটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শিহাব উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শামসুল আলম খান, মোঃ মোবারক হোসেন, মোঃ জহিরুল আলম, মোহাম্মদ হোসাইন ঢালু, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আরিফুল ইসলাম কাকন, যুগ্ম মহাসচিব আশরাফুজ্জামান, কামরুজ্জামান মিলন, সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইন মোহাম্মদ ফারুক, দপ্তর সম্পাদক মোঃ শওকত হোসেন, যুব বিষয়ক সম্মাদক মোঃ মনির হোসেন, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সোহাগ দেওয়ান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মোতাসিম বিল্লাহ, সহ ধর্ম বিষয়ক আবদুল কুদ্দুস আনসারী, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ জোবায়ের হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুল হালিম হিমসহ প্রমুখ নেতারা মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।