‘সরকার পাগলের স্বর্গে বাস করছে’

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২ জানুয়ারি , ২০১৫ সময় ০৯:০১ অপরাহ্ণ

গণফোরামের সভাপতি ও বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেন বলেছেন, পৃথিবীর ইতিহাস প্রমাণ করে যে মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করে কোন শাসকগোষ্ঠী জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে টিকে থাকতে পারেনি। সময়ের ব্যবধানে নিপীড়িত জনতার পিঠ যখন দেয়ালে ঠেকে গেছে তখন তারা ওই অত্যাচারী শাসকদের লজ্জাজনকভাবে বিদায় দিয়ে ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত করেছে। বর্তমান সরকার যে সব কর্মকাণ্ড করছে মনে হচ্ছে তাদের মানসিক ও কানের চিকিৎসা করাতে হবে। এদের মানবতাবোধ হারিয়ে গেছে।
শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ মানবাধিকার পর্যবেক্ষণ পরিষদ আয়োজিত ‘৪৩ তম বিজয় দিবস এবং বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি শীর্ষক’ এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
ড. কামাল বলেন, ৫ই জানুয়ারির একটি বিতর্কিত নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসা সরকার মনে করে যে কোন মূল্যেই হোক ক্ষমতায় থাকতে হবে। নইলে শেয়ার বাজার লুটপাট করা যাবে না। ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়ার নামে কোটি কোটি টাকা ডাকাতি করা যাবে না। সস্ত্রাস ও নৈরাজ্য করে দখলদারিত্ব ও মানুষকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। তবে সরকারকে এই বিষয়টি উপলব্ধি করতে হবে যে, একদিন তাদের ক্ষমতা ছেড়ে দিতে হবে। এটাই নিয়ম। যদি ভেবে থাকে যে তারা আজীবন ক্ষমতায় থাকবে তবে তারা পাগলের স্বর্গে বাসবাস করছে। তিনি বলেন, সংবিধানের মৌলিক অধিকার হচ্ছে বাক ও বক্তির স্বাধীনতা। সরকারকে দেশের ১৬ কোটি মানুষের কথা শুনতে হবে। কিন্তু, তারা কথা শুনার মানসিকতা হারিয়ে ফেলেছে। জনগণের সবার কথা শুনতে হবে।