সরকার দলীয় বিতর্কিত সংসদ সদস্য বদিকে রাজকীয় সংবর্ধনা

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ১১:২২ অপরাহ্ণ

[two_fifth_last] সদ্য কারামুক্ত কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সরকার দলীয় বিতর্কিত সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদিকে রাজকীয় সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে উখিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

এর আগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় তিনি আটক হন। গত ১৪ অক্টোবর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। ১৮ দিন কারাভোগের পর গত ৩০ অক্টোবর ঢাকার কাশিমপুর কারাগার থেকে তিনি মুক্তি পান।

মঙ্গলবার সকালে বেসরকারি একটি বিমানে করে কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছান। সেখান থেকে গাড়ি বহর নিয়ে টেকনাফে পৌঁছান। বিকেলে উখিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে তিনি প্রথমে রাজকীয় সংবর্ধনায় সিক্ত হন।

এরপর সন্ধ্যায় টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় চত্বরে দ্বিতীয় দফায় তাকে রাজকীয় সংবর্ধনা দেয়া হয়। আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে এসব সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।
বদিকে বরণ
কারামুক্ত বিতর্কিত সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদিকে সংবর্ধনা দিতে গত তিন দিন ধরে উখিয়া-টেকনাফে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রমতে, দুদকের মামলায় সদ্যকারামুক্ত এমপি বদিকে সংবর্ধনা জানাতে উখিয়া ও টেকনাফ উপজলায় সাড়ে তিনশর বেশি তোরণ নির্মাণ করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন পয়েন্টে সাঁটানো হয় বড় ব্যানার, ফেস্টুনসহ নানা প্রচার-প্রচারণা সম্বলিত লিফলেট।

রাজকীয় সংবর্ধনায় সিক্ত বদি বক্তব্য দিতে গিয়ে বলেন, ‘আমি এলাকার উন্নয়ন করেছি, তাই দুর্নীতির বদনাম উঠেছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বাধাগ্রস্ত করতে একটি কুচক্রী মহলের চক্রান্তে আমি ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছি। কিন্তু উখিয়া-টেকনাফের হাজার হাজার জনতা বুঝতে পেরেছে আমি কোনো দুর্নীতি করিনি। দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে আমি নিজেকে উৎসর্গ করে আসছি। আল্লাহর কাছে হাজারো শুকরিয়া কিছু মানুষের মধ্যে যে ভুল ধারনা ছিল তা আজ গণসংবর্ধনার মাধ্যমে প্রমাণ হয়েছে।

সরকার প্রধানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বদি আরো বলেন, ‘সরকার প্রমাণ করেছে সে যেই হোক দুর্নীতি করলে এ সরকার কাউকে ক্ষমা করে না। জননেত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতিমুক্ত দেশ ও সমাজ গঠনে অঙ্গীকারাবদ্ধ।’

সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বদি বলেন, ‘দুর্নীতি দমন কমিশন স্বাধীনভাবে দায়িত্ব পালন করেছে। তাই সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদেরও আমি সাধুবাদ জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, দুদকের দায়ের করা মামলায় গত ১২ অক্টোবর এমপি আবদুর রহমান বদি আদালতে আত্মসমর্পণ করতে যান। এসময় আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ১৮ দিন কারাভোগের পর গত ৩০ অক্টোবর বদি ৬ মাসের জামিন নিয়ে বের হয়ে আসেন।