সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত চট্টগ্রামের রাজপথ ছাড়বে না বিএনপি

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ০৮:১৭ অপরাহ্ণ

bnp-22২৪ অক্টোবরের মধ্যে নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি না মানলে ২৫ অক্টোবর থেকে চট্টগ্রামে ‘গণতন্ত্র মঞ্চ’ গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর কাজিরদেউরীর মোড়ে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিলের আগে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ ঘোষিণা দেন।

নোমান বলেন, ‘নিজে ক্ষমতার কেন্দ্রে থেকে শেখ হাসিনার সর্বদলীয় সরকারের প্রস্তাব দেশের জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে। দেশনেত্রী যে বিকল্প প্রস্তাব দিয়েছেন তা দেশের রাজনৈকিত সঙ্কট নিরসনে ভূমিকা রাখবে। আগামী ২ দিনের মধ্যে সরকারকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে দাবি মেনে নিতে হবে। আর যদি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়ার চেষ্টা করে তাহলে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশের জনগণ তা প্রতিহত করবে। চট্টগ্রামের কাজীর দেউড়িতে ‘গণতন্ত্র মঞ্চ’ গঠন করে সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।’

সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত চট্টগ্রামের রাজপথ ছাড়বেন না উল্লেখ করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘দেশনেত্রীর নির্দেশে সরকারের পতন নিশ্চিত করতে চট্টগ্রামে এসেছি। সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আমি চট্টগ্রামের রাজপথে অবস্থান করবো। এই সরকারের পায়ের নিচে মাঠি নেই। তাদের বিরুদ্ধে পাড়ায় পাড়ায় স্কোয়াড গঠন করে পাতানো একদলীয় নির্বাচন প্রতিহত করতে হবে।’

চট্টগ্রামকে আন্দোলনের সূতিকাগার উল্লেখ করে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য নোমান বলেন, ‘আপনাদের একটি পথ বেছে নিতে হবে। হয় রাজপথ, না হয় কারাগার। বিজয় নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাওয়া যাবে না। অতীতে চট্টগ্রাম থেকে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম শুরু হয়েছে। এখান থেকেই একাত্তর সালে শহীদ জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। এরপর দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে দেশের স্বাধীনতা অর্জন করেছি। ২৫ অক্টোবর থেকে আমরা আরও একটি সংগ্রামে অবতীর্ণ হবো। আর এবারের সংগ্রাম হবে বেগম জিয়ার নেতৃত্বে মানুষের ভোটাধিকার রক্ষা এবং দেশ ও মানুষ বাঁচানোর সংগ্রাম। এই সংগ্রামে ইনশাল্লাহ জনগণ বিজয়ী হবে।’ৎ

এসময় হাজার হাজার নেতাকর্মী হাত উঁচিয়ে রাজপথে থাকার শপথ নেন।

প্রশাসনের প্রতি নিরপেক্ষ ভূমিকার রাখার আহ্বান জানিয়ে সাবেক মন্ত্রী বলেন, ‘আপনার গণতন্ত্রের সেবক। আপনারা কোনো দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবেন না। এই সরকারের সময় ফুরিয়ে গেছে। সামনে জনগণের সরকার আসছে, তাই দলবাজি করলে কেউ রেহাই পাবে না।’

নগর যুবদলের সভাপতি কাজী বেলালের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির শিশু বিষয়ক সম্পাদিকা রোজী কবির, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেনসহ বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতারা।

সমাবেশ শেষে কাজীরদেউড়ি থেকে একটি বিশাল মিছিল দলীয় কার্যালয়, লাভলেইন এনায়েত বাজার, আমলতল হয়ে নিউ মার্কেটে গিয়ে শেষ হয়।


আরোও সংবাদ