‘সম্পদের অপচয় না করে সঠিক ব্যবহার করলে উৎপাদনশীলতা বাড়ে’

প্রকাশ:| রবিবার, ৭ আগস্ট , ২০১৬ সময় ১০:৫৩ অপরাহ্ণ

ইর্স্টান রিপতেঙ্গায় অবস্থিত রাষ্ট্রীয় তেল শোধনাগার কেন্দ্র ইস্টার্ন রিফাইনারী লিমিটেড (ইআরএল) পরিদর্শন করেছেন বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটি।

কমিটির সভাপতি মো. তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে পরিদর্শন কালে কমিটির সদস্য এম আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন।

কমিটি ই আর এল এর প্রসেস কন্ট্রোল রুম, রিফাইন ইউনিট, কোয়ালিটি কন্ট্রোল সিস্টেম, ক্রুড স্টোরেজ এবং ইউনিট-২ এর অগ্রগতি পরিদর্শন করেন। পরে কমিটি সিবিএ এবং অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাথে পৃথক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।

অনুষ্ঠানে কমিটির সভাপতি বলেন, বর্তমান সরকার ঘোষিত মধ্যম আয়ের দেশ গড়ার অংশ হিসেবে জ্বালানী নিরাপত্তা নিশ্চিত রাখতে ই আর এল ইউনিট-২ এর কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে।

আগামী ৩ বছরের মধ্যে ইউনিট-২ উৎপাদনে যাবে। ইউনিট-২ চালু হলে জ্বালানী উৎপাদন ৩ মিলিয়ন মেট্রিক টনে উন্নীত হবে। ফলে জ্বালানী খাতে আমদানী নির্ভরতা অনেকাংশে কমে আসবে।

তিনি বলেন, সম্পদের অপচয় না করে এর বাস্তব ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারলে উৎপাদনশীলতা বাড়ে। জ্বালানী খাত আরো সমৃদ্ধশালী হয়। তিনি বলেন, মাতারবাড়িসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে জ্বালানী খাতে গৃহীত প্রকল্প সমূহ বাস্তবায়িত এবং ইউনিট-২ এর উৎপাদন শুরু হলে দেশের জ্বালানী নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে।

কর্মকর্তা কর্মচারীদের ঝুঁকি ভাতা, স্থায়ী ভাতা প্রদানসহ অন্যান্য দাবীর বিষয়ে অবগত হয়ে এসব বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেন।

বিপিসির চেয়ারম্যান মাহমুদ রেজা খান, সংসদ সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব গোলাম মোস্তফা, ই আর এল এর এমডি মো. এমদাদুল হকসহ সংসদ সচিবালয় ও ই আর এল এর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।


আরোও সংবাদ