সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে মেধাবী শিক্ষার্থীর বিকল্প নেই

প্রকাশ:| শনিবার, ২ মে , ২০১৫ সময় ১০:০১ অপরাহ্ণ

জিনিয়াস মেধাবৃত্তি পুরস্কার উৎসবে তৌহিদ

নিজস্ব প্রতিনিধি, আনোয়ারা
সমৃদ্ধ  বাংলাদেশ গড়তে মেধাবী শিক্ষার্থীর বিকল্প নেইজিনিয়াস মেধাবৃত্তি পুরস্কার প্রদান উৎসবে আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী বলেছেন, শিশুরাই জাতির কর্ণধার। দেশ ও জাতির আগামী দিনের ভবিষ্যত। মেধা-মননে আজকের শিশুদের আগামী দিনের যোগ্য ও মেধাবী নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। আর এসব মেধাবী প্রজন্মরাই গড়বে আগামী দিনের আধুনিক ও সমৃদ্ধির বাংলাদেশ। গতকাল শনিবার (২ মে) বিকাল ৩টায় আনোয়ারা সদরে মা কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত জিনিয়াস বাংলাদেশ মেধাবৃত্তি পুরস্কার প্রদান উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তৌহিদুল হক চৌধুরী বলেন, শিশুদের স্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে। একাডেমীক শিক্ষার পাশাপাশি বড় পরিসরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। এ ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন মেধাবৃত্তি পরীক্ষাগুলো বিশেষ সহায়ক ভূমিকা পালন করছে।
অনুষ্ঠানের উদ্বোধক আনোয়ারা নির্বাহী কর্মকর্তা মুফিদুল আলম বলেন, প্রাথমিক স্তর শিশুদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সময়। এ সময়ে পরিপূর্ণ বিকাশে প্রয়োজনীয় সব শর্ত যথাযথভাবে পূরণ করা গেলে শিশুরা মেধা ও মননে যোগ্য হয়ে উঠবে। এক্ষেত্রে শিশুরা যদি নিজ গন্ডির বাইরে গিয়ে মেধা বিকাশের সুযোগ পায় তাহলে সে শিক্ষা অধিক ফলদায়ক হয়।
তিনি বলেন, শিশুদের প্রতিযোগিতার মধ্যে থেকে এগিয়ে যাবার উৎসাহ-উদ্দীপনা জাগাতে হবে। পাশাপাশি মেধার স্বীকৃতি স্বরূপ বিভিন্ন উপহার সামগ্রী এসব খুদে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দিতে পারলে তারা আরো দ্বিগুণ উৎসাহে প্রতিভা বিকাশে এগিয়ে যাবে।
ডা. সন্তোষ কুমার দে’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও পুরস্কার প্রদান উৎসবে অতিথি আনোয়ারা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তপন কান্তি চৌধুরী বলেন, জাতিকে সুুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে হলে প্রতিযোগিতামূলক শিক্ষার বিকল্প নেই। একটি মেধা ও শিক্ষিত জাতিই পারে পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে। তাই সর্বস্তরে উন্নত ও গুণগতমান সম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করতে সরকার নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন প্রয়াস এক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে বলে আমি মনে করি।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জিনিয়াস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সরোজ আহমেদ। এছাড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল মান্নান, আনোয়ারা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ছৈয়দ, অধ্যাপক কাজী গোলাম মোস্তফ।
সংগঠনের সদস্য সচিব মিয়া এমএ করিম ও সুশান্ত শীলের সঞ্চালনে পুরস্কার প্রদান উৎসবে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ-সভাপতি ডিআইএম জাহাঙ্গীর আলম, সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি আনোয়ারা উপজেলা শাখার সভাপতি কেএম এরশাদ হোসাইন, সহ-সভাপতি রূপন কান্তি শীল, পুলক কুমার সেন, মুহাম্মদ রিদ্ওয়ানুল হক, আবদুল মান্নান, সুজয় পাল প্রমুখ।
সবশেষে অতিথিরা বৃত্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে সনদ, ক্রেস্ট ও পুরস্কার সামগ্রী তুলে দেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে টিভি-বেতার শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।