সন্ধ্যার পর থেকে অন্তত ১২টি গাড়িতে আগুন ও ২০/২৫টি যানবাহন ভাঙচুর

প্রকাশ:| শনিবার, ২১ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

গাড়িতে আগুন১চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নি সংযোগ করেছে পিকেটাররা। অবরোধের প্রথম দিন শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে অন্তত ১২টি গাড়িতে আগুন ও ২০/২৫টি যানবাহন ভাঙচুর করেছে ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীরা।
জানা গেছে, সন্ধ্যা সোয়া ৭টা থেকে সাড়ে ৭টার মধ্যে নগরীর আকবর শাহ থানার মাজার এলাকায় ৪টি ট্রাকে আগুন দেওয়া হয়। এ সময় বেশকিছু গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। একই সময়ে পাহাড়তলী সরাইপাড়া কলকা সিএনজি ষ্টেশনের সামনে একটি তেলের ভাউচার ও একটি ট্রাকে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে আগুন দেয় অবরোধকারীরা। এছাড়া সিটি গেইটের সামনে ২টি কার্ভাডভ্যান ও একটি ট্রাক এবং কর্নেলহাটে একটি ট্রাক পুড়িয়ে দেওয়া হয়। এসব এলাকায় ব্যাপক ককটেল বিস্ফোরণে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। নগরীতে দিনের বেলা কিছু যানবাহন চলাচল করলেও রাতে যানচলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

সিএমপির আকবরশাহ থানার ওসি আগুন দেওয়ার ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, অতর্কিতভাবে কিছু দুর্বৃত্ত চলন্ত গাড়ি লক্ষ্য করে ২টি ককটেল নিক্ষেপ করেছে। এতে একটি গাড়িতে পড়ে অন্যটি রাস্তায় পড়ে বিস্ফোরণ হয়েছে। আগুন দেওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এদিকে রাতে নগরীর লালদীঘি এলাকায় একটি গাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

এর আগে অবরোধ চলাকালে দুপুরে নগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানার অক্সিজেনস্থ আতুরার ডিপু এলাকায় পুলিশকে লক্ষ্য করে পিকেটাররা ৭/৮টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এ সময় পুলিশ ধাওয়া দিয়ে শিবিরকর্মী সন্দেহে ৩ জনকে আটক করেছে।