সন্দেহভাজন কিম ওং ৪৬ লাখ ডলার ফেরত দিয়েছেন

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ , ২০১৬ সময় ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের রিজার্ভের অর্থ লোপাটের ঘটনায় অন্যতম সন্দেহভাজন কিম ওং ৪৬ লাখ ডলার ফেরত দিয়েছেন। আজ ফিলিপাইনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্যাংকো সেন্ট্রাল কিম ওংনগ পিলিপিনাসে (বিএসপি) তিনি স্বেচ্ছায় এ অর্থ ফেরত দেন। এ খবর দিয়েছে জিএমএ নিউজ। বিএসপি কর্তৃপক্ষ এ অর্থ প্রাপ্তির কথা নিশ্চিত করেছে। কর্মকর্তারা জানান, বিএসপি ও অর্থপাচারবিরোধী কাউন্সিলের (এএমএলসি) কর্মকর্তারা অর্থ গুনছেন। এ বিষয়ে এএমএলসি’র নির্বাহী পরিচালক জুলিয়া আবাদের একটি বিবৃতি দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।
এর আগে মঙ্গলবার ফিলিপাইনের সিনেট শুনানিতে কিম ওং জানান, দুই ব্যক্তির কাছ থেকে পাওনা এবং বিনিয়োগের জন্য তিনি বিপুল পরিমাণ অর্থ পেয়েছিলেন। কিন্তু তার জানা ছিল না, এসব বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে চুরি করা অর্থ। তিনি শুনানিতেই বিনিয়োগের জন্য গচ্ছিত ৪৬ লাখ ডলার ফেরত দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। এছাড়া পাওনা হিসেবে তিনি যে ৪৫ কোটি পেসো পেয়েছিলেন, সেটিও যদি বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা হয়, তবে তিনি তা ফেরত দেবেন।