সন্ত্রাসীদের বহিস্কার, ছাত্রত্ব বাতিল ও অবিলম্বে গ্রেফতার দাবি

প্রকাশ:| বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি , ২০১৬ সময় ১১:৪৮ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে প্রথম আলোর ফটো সাংবাদিক জুয়েল শীলের উপর হামলাকারী ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীদের সংগঠন থেকে বহিস্কার, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে ছাত্রত্ব বাতিল ও অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

বুধবার চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এ দাবি জানানো হয়। সমাবেশে সাংবাদিকদের আন্দোলন সম্পর্কে ফেসবুকে কুৎসা রটনাকারীদের বিরূদ্ধে আইসিটি এ্যাক্ট-এ মামলা রুজুর মাধ্যমে আইনের আওতায় আনার আহ্বান জানান বক্তারা।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি নগরীর প্রবর্তক মোড়ে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে দৈনিক প্রথম আলোর ফটো সাংবাদিক জুয়েল শীলের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগ নেতা রাশেদের নেতৃত্বে কতিপয় নেতাকর্মী। এ ঘটনার প্রতিবাদে পূর্বঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসাবে দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সন্ত্রাসীদের বহিস্কার, ছাত্রত্ব বাতিল ও অবিলম্বে গ্রেফতার দাবিসিইউজের সভাপতি এজাজ ইউসুফী ও যুগ্ম সম্পাদক ম. শামসুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বিএফইউজে সভাপতি শহীদ উল আলম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ার, সিইউজের সাবেক সভাপতি এম. নাসিরুল হক, সহ সভাপতি রতন কান্তি দেবাশীষ, প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী, ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মোয়াজ্জেমুল হক, সিইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, নাজিমুদ্দীন শ্যামল, নুরুল আমিন, নির্মল চন্দ্র দাশ, বিএফইউজে যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, দৈনিক প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক বিশ্বজিত চৌধুরী, সহকারী সম্পাদক ওমর কায়সার, প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সিইউজের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মো. আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক সবুর শুভ, সিইউজে নির্বাহী কমিটির সদস্য ও চট্টগ্রাম ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ মাহমুদ, সিইউজে টিভি ইউনিটে ডেপুটি চিফ অনিন্দ্য টিটো, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম এর সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মর্তুজা প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা সাংবাদিক জুয়েল শীলের ওপর যে ন্যাক্কারজনক হামলা চালিয়েছে তা পুরো সাংবাদিক সমাজের উপর হামলার শামিল। এছাড়া তাঁকে যেভাবে লাঞ্চিত করা হয়েছে একটি ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের কাছ থেকে তা আশা করা যায়না। এঘটনা শুধু সাংবাদিক সমাজকে আহত করেনি একটি ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠনকেও কলঙ্কিত করেছে। পাশাপাশি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের মতো একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের গায়েও কালিমা লেপন করেছে। তাই এ ঘটনায় দায়িদের যথাযথ শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।