সন্তান সেজে জালিয়তি অত:পর কারাদন্ড

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল , ২০১৬ সময় ০৯:১৩ অপরাহ্ণ

আদালত
ভূয়া সন্তান সেজে জালিয়াতি করায় স্বপন নাথ নামে এক ব্যক্তি ও তার দুই সহযোগীকে সাত বছরের কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই রায়ে আদালত তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) চট্টগ্রামের মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) মো. শাহজাহান কবির এ রায় দিয়েছেন।

দন্ডিতরা হলেন, নগরীর কেবি আমান আলী রোডের বাসিন্দা স্বপন নাথ ও তার সহযোগী নিখিল চন্দ্র বোস ও হারাধন নাথ।

চট্টগ্রাম মহানগর অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট আবিদ হোসেন জানান, আসামি স্বপন নাথ নগরীর দক্ষিণ কাট্টলীর বাসিন্দা সতীশ চন্দ্র নাথের সন্তান হিসেবে ভূয়া ওয়ারিশ সার্টিফিকেট ও এনআইডি কার্ড তৈরি করেন। স্বপন ২০০৭ সালে ১১ নম্বর কাট্টলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছিদ্দিক আহাম্মদ চৌধুরীর থেকে ‍কাছ থেকে ভূয়া ওয়ারিশ সনদও নেন। পরে ভূয়া সেই ওয়ারিশ সনদপত্র বাতিল করেন কাউন্সিলর ছিদ্দিক।

ভূয়া নথিপত্র তৈরি করে সন্তান সেজে মৃত সতীশ চন্দ্র নাথের কোটি টাকা সম্পত্তি অন্যজনকে বিক্রি করে দেন। বিষয়টি জানার পর সতীশ চন্দ্র নাথের প্রকৃত সন্তান হরিপদ নাথ আদালতে মামলা করেন। আসামি স্বপন নাথকে ডিএনএ টেস্ট করতে আদালত নির্দেশ দেন। কিন্তু স্বপন নাথ আদালতের নির্দেশ অগ্রাহ্য করেন।

এরপর স্বপন নাথের ভাই বিমল দেবনাথ আদালতে তার জালিয়াতির বিষয়ে সাক্ষ্য দেন। মূলত ভাইয়ের সাক্ষ্যেই দোষী সাব্যস্ত হয়ে যান স্বপন নাথ।

তিন আসামি জামিনে ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানান আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. নূরে খোদা।

এনসি/ শুভেচ্ছা অভিলাষ