সততা, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতার কারণে আল্লাহ বরকত দিয়েছে

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৪ মার্চ , ২০১৫ সময় ০৮:২৬ অপরাহ্ণ

চসিক কায়সার-নিলুফার কলেজের এইচ এস সি পরীক্ষার্থী বিদায় ও বার্ষিক ক্রীড়া এবং সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম বলেছেন নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে ৪ হাজার প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে। চলমান উন্নয়ন কাজের প্রায় ৮০ ভাগ শেষ হয়েছে। নগরীর জলাবদ্ধতা প্রায় ৮০ ভাগ কমে গেছে। মেয়র বলেন, বিগত ৫৭ মাসে প্রায় ৯ শত কোটি টাকার উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। এর পূর্বে বিগত ২০ বছরে মাত্র ১৫ শত কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছিল। তিনি বলেন, সততা, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতার কারণে সেবা খাতে আল্লাহ বরকত দিয়েছে। তিনি সম্মানিত করদাতাদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ৫৭ মাসের দায়িত্ব পালনকালীন সময়ে ১ দিনের জন্যও অর্থের কোন ধরনের ঘাটতি হয় নাই। মেয়র বলেন, নতুন নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা, ভবন নির্মাণ, আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ারের ৫৯০ জন কর্মচারীদের সিটি কর্পোরেশনে আত্মীকরণ সহ সাড়ে ৭ হাজার কর্মচারীর বেতন-ভাতা নিয়মিত পরিশোধ, উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনায় কোন ধরনের অনিয়ম পরিলক্ষিত হয় নাই। তিনি বলেন, শিক্ষা খাতে বছরে ব্যয়িত অর্ধেক ভর্তুকি দেয়ার পরও সিটি কর্পোরেশন সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত হয়েছে। কায়সার-নিলুফার কলেজের জন্য ১ কানি জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। অচিরেই অত্র কলেজের নিজস্ব জমিতে স্বতন্ত্র শিক্চসিক কায়সার-নিলুফার কলেজে_1ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠবে। মেয়র আশা করেন ডিগ্রী থেকে অনার্স কোর্স অচিরেই চালু হবে। সময়ের ব্যবধানে একসময় অত্র কলেজটি বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপ নেবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, উন্নয়নশীল দেশ একদিন উন্নত দেশে পরিণত হবে। মেয়র ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে মেধা, বুদ্ধি ও প্রযুক্তিতে দেশকে গড়ে তোলার পরামর্শ দেন। মেয়র সুনাগরিক হওয়ার উপর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, প্রফেসর, ডাক্তার, প্রকৌশলী ও প্রশাসনিক দায়িত্ব অর্জন করতে হলে উচ্চ শিক্ষা অর্জন করতে হবে। তিনি বলেন, মানুষের সেবা নিঃস্বার্থ হলে বান্দার খেদমত করতে আল্লাহ তায়ালা সহায়তা করেন। ২৪ মার্চ ২০১৫খ্রি. দুপুরে নগরীর মুসলিম ইনস্টিটিউট হলে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কায়সার-নিলুফার কলেজের এইচ এস সি পরীক্ষার্থী বিদায় এবং কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-৩ চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক, মহিলা কাউন্সিলর মিসেস আনজুমান আরা বেগম, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা আলহাজ্ব অধ্যাপক মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য সাবেক কমিশনার পেয়ার মোহাম্মদ, মোস্তফা আমান উল্লাহ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কায়সার-নিলুফার কলেজের অধ্যক্ষ শেখ মোহাম্মদ ওমর ফারুক। অনুষ্ঠানের শুরুতে মেয়রকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ এবং কলেজের মনোগ্রাম খচিত ক্রেস্ট উপহার দেয়া হয়। পরে বিদায়ী এইচ এস সি পরীক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীরা ফুলেল শুভেচ্ছায় বিদায় জানান এবং একাদশ শ্রেণির নবাগতদের ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করা হয়। এছাড়াও পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত ও গীতা পাঠের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়।


আরোও সংবাদ