‘সঙ্কটে বাংলাদেশ : নাগরিক ভাবনা’ শীর্ষক সংলাপে আলীগ সম্মতহলেও তারা আসেনি সিপিডি

প্রকাশ:| রবিবার, ২৯ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:২১ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি), আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক), ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ও সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)। শনিবার রাজধানীর একটি হোটেলে ‘সঙ্কটে বাংলাদেশ : নাগরিক ভাবনা’ শীর্ষক বৈঠকের আয়োজন করে সিপিডি, আসক, টিআইবি ও সুজন। তাতে দেশের বিভিন্ন পেশার প্রথিতযশা ৫৪ জন প্রতিনিধি আলোচনায় অংশ নেন। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘সঙ্কটে বাংলাদেশ : নাগরিক ভাবনা’ শীর্ষক সংলাপে আওয়ামী লীগের কোন প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। গতকাল এক বিবৃতিতে আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়-আয়োজকদের পক্ষ থেকে সিপিডি’র নির্বাহী পরিচালক প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ও আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচটি ইমামের সঙ্গে টেলিফোনে গত ২৪শে ডিসেম্বর সংলাপে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করলে তিনি তাতে সম্মতি জানান। পরে ২৫শে ডিসেম্বর তিনি সংলাপের দিন আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশের কথা থাকায় তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন। সিপিডির চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভীকে সংলাপে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করেন। সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস ও মিডিয়া উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরীকে আমন্ত্রণ জানানো হলে তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার সম্মতি প্রদান করেন। এ ছাড়া ই-মেইল, এসএমএস বা সরাসরি ফোনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত এমপি, মোহাম্মদ নাসিম, মেজর জেনারেল (অব.) কে.এম শফিউল্লাহ বীরউত্তম, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নূহ-উল-আলম লেলিন, ভাইস প্রিন্সিপাল আবদুস শহিদ এমপি, লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান এমপি, ড. আবদুর রাজ্জাক এমপি, সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি, মেহের আফরোজ চুমকী এমপি, এডভোকেট রহমত আলী এমপি, আসাদুজ্জামান নূর এমপি, ইসরাফিল আলম এমপি, সাগুফতা ইয়াসিমন এমপি, একে এম মাঈদুল ইসলাম এমপিকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। এ ছাড়া মন্ত্রিপরিষদের সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ সংলাপে উপস্থিত থাকতে সম্মত হন। কিন্তু ঘন কুয়াশার কারণে তার বিমান চট্টগ্রাম থেকে ২৭শে ডিসেম্বর রাতে ঢাকায় অবতরণ করতে না পারায় তিনি অংশগ্রহণ করতে পারেননি। অতএব সিপিডি, আসক, টিআইবি ও সুজন কর্তৃক আয়োজিত শনিবারের সংলাপে আওয়ামী লীগের কোন প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি- এ বক্তব্য সঠিক নয়।