সংসদ ঐক্যবদ্ধ আছে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ০৬:১৫ অপরাহ্ণ

পাকিস্তানের চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে আক্রমণ ও অভ্যূত্থানের বিরুদ্ধে সমগ্র সংসদ ঐক্যবদ্ধ আছে বলে জানিয়েছেন দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার আলী খান।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
মঙ্গলবার সংসদে যৌথ অধিবেশনে বক্তৃতাদানকালে দেশটির রাজনৈতিক পরিস্থিতির ইঙ্গিত দিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশ এখন কঠিন সময়ে অতিবাহিত হচ্ছে। এ সংসদ ১৮ কোটি মানুষের প্রতিনিধিত্ব করছে। তাই মাত্র কয়েক হাজার মানুষের জন্য দেশে কোনো ধরণের আক্রমণ ও অভ্যূত্থানের বিরুদ্ধে সংসসদের সবাই ঐক্যবদ্ধ।

তিনি আরও বলেন, কারও সন্দেহ থাকা উচিত নয় যে দেশ নির্বাচিত প্রতিনিধিদের দ্বারাই পরিচালিত হচ্ছে।

নিসার বলেন, পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা ইমরান খান মাত্র ৮ দিন আগে আমাদের প্রতি তার সমর্থন জানিয়েছিল। কিন্তু হঠাৎ এমন কি হলো যে এখনই তাকে ইউ টার্ন নিতে হবে। এটা কোনো বিক্ষোভ কিংবা অনশন নয়, এটা পাকিস্তান ও রাষ্ট্রীয় সংস্থার বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান।

দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম পিটিভি কার্যালয়ে আক্রমনের ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ সময় বিক্ষোভকারীরা সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙে ফেলেছে এবং কর্মকর্তাদের কাছ থেকে ক্যামেরা কেড়ে নিয়েছে। এমনকি একজন নারীকর্মীর সাথে খারাপ ব্যবহার করে মোবাইল ফোন ও মূল্যবান জিনিসপত্র কেড়ে নিয়েছে। যা খুবই লজ্জাজনক।

তারা বিপ্লবী নয়, তারা অবৈধ প্রবেশকারী এবং সন্ত্রাস মাত্র উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, বিক্ষোভকারীরা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সন্ত্রাসী। যাদের হাতে কুড়াল, কাঠের লাঠি, কাঁচি, হাতুড়ি, কাটার যন্ত্র এবং গুলতি শোভা পাচ্ছে।

চৌধুরী বলেন, এ বিক্ষোভে কমপক্ষে একশ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। যাদের সিসিটিভি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে সণাক্ত করা যেতে পারে।

জাভেদ হাশমির বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তিনি হতাশ পিটিআই নেতার উদ্বৃতি দিয়ে এ ধরনের মন্তব্য করতে পারেন না। তারপরও তিনি বলেছেন ইমরান খান সেনা ও বিচার ব্যবস্থাকে রাজনীতিতে আনার চেষ্টা করছেন। যা একটি ঘৃণ্য কাজ।

মঙ্গলবার পাকিস্তান সংসদের উচ্চকক্ষ ও নিম্নকক্ষের সমন্বয়ে এ যৌথ অধিবেশন শুরু হয়।

সংসদের স্পিকার এনএ আয়াজ সাদিক এবং সিনেট চেয়ারম্যান নায়ার বুখারির সভাপতিত্বে এ অধিবেশন শুরু হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের পরামর্শে দেশটির রাষ্ট্রপতি মামনুন হোসেন সংসদের এ জরুরী যৌথ অধিবেশন শুরুর নির্দেশ দেন। অধিবেশনে নওয়াজ শরীফ উপস্থিত আছেন।

এ উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বিরোধী দলীয় নেতা সাইদ খুরশিদ শাহ এবং সিনেটের বিরোধী নেতা আতজাজ আহসানের সাথে পরামর্শ করেছেন বলে জানা গেছে।


আরোও সংবাদ