সংবিধানকে ক্ষতবিক্ষত করার পরিণতি ভয়াবহ হবে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

সংবিধানকে ক্ষতবিক্ষত করে যারা ক্ষমতায় যাওয়ার চেষ্টা করছে, তাদের পরিণতি অত্যন্ত ভয়াবহ হবে বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরামের সভাপতি ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. কামাল হোসন।
gonoforam
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের লালদিঘী মাঠে জাতীয় স্বার্থে জাতীয় ঐক্যের লক্ষ্যে আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ড. কামাল বলেন, ‘বর্তমান সরকার নিজেদের মতো নির্বাচন করতে গেলে দেশে সংঘাত বয়ে আনবে। গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দেশে ফিরে আসবে স্থিতিশীল পরিবেশ। এই পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য বর্তমান সরকারকেই সবচেয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। তা না হলে দেশবাসীর আশা-আকাঙ্খা অন্ধকারে নিমজ্জিত হবে।’

গণফোরাম সভাপতি বলেন, ‘এমন পরিস্থিতির মধ্যে সকল দলের অংশগ্রহণে সংলাপের মাধ্যমে চুক্তির প্রয়োজন। আর এই চুক্তির ভিত্তিতেই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে দেশে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকবে। কেননা দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন কখনো গ্রহণযোগ্য হবে না।’

বর্তমান সরকার নির্বাচন কমশিন, বিচার বিভাগ এবং দুর্নীতি দমন কমিশনকে দুর্বল করে রেখেছে বলেও মন্তব্য করেন ড. কামাল।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘কোনো আইন মেনে নয়, শেখ হাসিনার ইচ্ছাতেই সংবিধান পরিবর্তন করে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করা হয়েছে। শেখ হাসিনার ভোটের জন্য বানিয়ে বানিয়ে কথা বলছেন, তার কথা বিশ্বাস করা যায় না।’

নাগরিক ঐক্য আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন অ্যাডভোকেট আব্দুল মুবিন চৌধুরী। বক্তব্য দেন সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউজ্জামান মজুমদার, বিকল্প ধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আব্দুল মান্নান প্রমুখ।

ছবি-বাংলা নিউজ২৪