সংবাদকর্মী বেকারত্বের দুঃসহ জীবন যাপন করছেন

প্রকাশ:| রবিবার, ১ মে , ২০১৬ সময় ১১:৫৯ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজে ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজে’র নেতৃবৃন্দ মহান মে দিবস উপলক্ষে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, এবার বাংলাদেশে মহান মে দিবসটি এমন এক সময়ে পালিত হচ্ছে, যখন রেকর্ডসংখ্যক সাংবাদিক ও সংবাদকর্মী বেকারত্বের দুঃসহ জীবন যাপন করছেন। বহু সংখ্যক গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান চরম অর্থ সংকটে ভুগছে। এসব প্রতিষ্ঠানে ৬ থেকে ২২ মাস পর্যন্ত বেতনভাতা বকেয়া পড়েছে। সরকারের রোষানলে পড়ে গোটা গণমাধ্যমজুড়ে দুর্বিষহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ভিন্নমত দলনে মরিয়া ক্ষমতাসীন সরকার একের পর এক গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিয়ে সংবাদকর্মীদের রুটিরুজিকে চরম হুমকির মুখে ঠেলে দিয়েছে। এমতাবস্থায় সংবাদকর্মীদের দুর্বিষহ জীবনের সাক্ষ্য বহন করছে আজকের মে দিবস।

বিএফইউজে’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুদ্দিন হারুন ও মহাসচিব এম আবদুল্লাহ এবং ডিইউজে’র সভাপতি কবি আবদুল হাই শিকদার ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান শনিবার এক যুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশসহ বিশ্বের সর্বস্তরের সংবাদকর্মীসহ শ্রমজীবী মানুষের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ১৮৮৬ সালের এ দিনে ন্যায্য অধিকার আদায় করতে গিয়ে আমেরিকার শিকাগো শহরে ‘হে মার্কেটে’ আত্মদানকারী শ্রমিকদের স্মৃতির প্রতি আমরা গভীর শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। শিকাগোর শ্রমিক আন্দোলনের সেই মহান নেতা পারসন্স ফাঁসির মঞ্চে দাঁড়িয়ে বলে গেছেন ‘আমাদের প্রাণ উৎসর্গ করছি পৃথিবীর সকল শ্রমজীবী মানুষের দাবি প্রতিষ্ঠার জন্য।’ সাংবাদিক সমাজের ন্যায়সংগত দাবি আদায়ে প্রয়োজনে আত্মোৎসর্গ করাসহ সর্বোচ্চ ত্যাগের প্রত্যয়দীপ্ত শপথই আজ সময়ের দাবি।

নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে অবিলম্বে বন্ধ গণমাধ্যম খুলে দিয়ে সাংবাদিকদের বেকারত্বের অবসান ঘটানো এবং যেসব প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘদিন বেতনভাতা বকেয়া রয়েছে তা অবিলম্বে পরিশোধ ও নবম ওয়েজবোর্ড গঠনের দাবি জানান।

– See more at: http://bangla.thereport24.com/article/154595/index.html#sthash.0ggtuuT4.EOjyciUa.dpuf


আরোও সংবাদ