শ্রমিকলীগ সভাপতি বাহিনীর হামলায় ৪ নারী আহত, গ্রেফতার-২

প্রকাশ:| বুধবার, ১৬ এপ্রিল , ২০১৪ সময় ১১:২৯ অপরাহ্ণ

বান্দরবানে শ্রমিকলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

বান্দরবান প্রতিনিধি ॥
বান্দরবানে আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন শ্রমিকলীগের সদর উপজেলা সভাপতি আব্দুল হকের বিরুদ্ধে পাহাড়ী-বাঙ্গালী দুই ব্যাক্তির জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার দুপুরে জমি দখলকারী শ্রমিকলীগের নেতাকর্মীদের হামলায় ৪ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শ্রমিকলীগ নেতা আব্দুল করিম ও মিয়ানমারের রোহিঙ্গা সৈয়দ করিম ২ জনকে গ্রেফতার করেছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বান্দরবান সদর উপজেলার কুহালং ইউনিয়নের বটতলী পাড়া এলাকায় ৫৪৬ হোল্ডিং মূলে চিংহ্লা খেয়াং এর ১একর এবং রাজিয়া বেগমের ১একর চল্লিশ শতক জায়গা রয়েছে। তাদের দুজনের দীর্ঘদিনের ভোগ দখলীয় জমিটি কয়েক মাস ধরে জোরপূর্বক দখল করে নেয়ার চেষ্ঠা চালিয়ে আসছেন সদর উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আব্দুল হক। বুধকার দুপুরে শ্রমিকলীগের সভাপতি আব্দুল হক শ্রমিকলীগের কর্মীসহ ২০/২৫ লোকজন নিয়ে জায়গা দখলের চেষ্ঠা চালান। এসময় বাঁধা দেয়ায় ৪ জন নারীকে পিটিয়ে আহত করেন তারা। আহতরা হলেন- রাজিয়া বেগম, লায়লা বেগম, রাবেয়া বেগম ও ফরিদা আক্তার। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার কওে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। আহত রাজিয়া বেগম বলেন, তিনি চিংহ্লা খেয়াং এর কাছ থেকে ১একর চল্লিশ শতক জমি কিনে নিয়েছেন। আমার জমি’সহ আশপাশের অন্যদের জায়গাগুলো দখল করতে যান শ্রমিকলীগ নেতা আব্দুল হক। বাধা দেয়ায় তাদের উপর হামলা চালিয়েছেন। তবে জমি দখল ও হামলা বিষয়টি অস্বীকার করে সদর উপজেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুল হক জানান, কারো জায়গা দখলের চেষ্টা করেননি তিনি। তার নিজস্ব জায়গায় শ্রমিকরা ঘর নির্মাণ করতে গেলে প্রতিপক্ষরা তাদের উপর হামলা চালান।
সদর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক এসআই নাসির উদ্দিন জানান, অমীমাংসিত জায়গা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে রোহিঙ্গাসহ দুজন’কে গ্রেফতার করা করা হয়েছে। প্রতিপক্ষের হামলায় আহত চার নারী সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। তবে এই ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।


আরোও সংবাদ