শেষ হয়েছে জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন বিষয়ক সংস্থার সভা

প্রকাশ:| বুধবার, ১৭ মে , ২০১৭ সময় ১০:৫৩ অপরাহ্ণ

পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে নিরাপত্তা ও প্রযুক্তিগত দিককে প্রাধান্য দেওয়ার তাগিদ দিয়ে চট্টগ্রামে শেষ হয়েছে জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন বিষয়ক সংস্থার এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলের কমিশনগুলোর যৌথ সভা।
বুধবার চট্টগ্রামের হোটেল র‌্যাডিসন ব্লুতে শেষ হয় তিনদিনব্যাপী এসভা।

জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থা ইউএনডব্লিউটিও’র এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের কমিশনগুলোর যৌথ আয়োজনে ২৯তম ক্যাপ-সিএসএ সভা শুরু হয়েছিল হয়েছিল সোমবার।

সমাপনীতে ইউএনডব্লিওটিও সেক্রেটারি জেনারেল তালেব রিফাই বলেন, পর্যটন ঘিরে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার এখন সময়।

সন্ত্রাসবাদ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “সন্ত্রাসবাদ এখন বৈশ্বিক সমস্যা। পৃথিবীর কোনো দেশ এখন শতভাগ নিরাপদ নয়। তবে আমরা যৌথভাবে কাজ করে সমস্যাগুলোকে কমিয়ে আনতে পারি।”

পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে নিরাপত্তা, প্রযুক্তিগত দিক ও টেকসই পর্যটনের ওপর গুরত্বারোপ করেন তালেব রিফাই।

বৃহস্পতিবার সম্মেলনে শেষে জানানো হয়, ইউএনডব্লিওটিও-র ৩০তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে ফিজিতে। আগামী বছর বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত হবে ভারতে।

আগামী সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে ‘টেকসই পর্যটন ও বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ’ সেমিনার আয়োজনের জন্য ১০ হাজার ইউরো বরাদ্দ করা করা হয়।

বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, ২০ দেশের প্রতিনিধিদের যৌথ এ সম্মেলনে চট্টগ্রামকে বেছে নেওয়ার উদ্যোগ খুব সফল হয়েছে ও বিদেশিরাও মুগ্ধ হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ সম্মেলনে পর্যটন সম্ভাবনাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য পাঁচটি প্রস্তাব তুলে ধরা হয়েছে।

কক্সবাজারে স্যুয়ারেজ প্ল্যান্ট স্থাপন, পর্যটনে দক্ষ জনশিক্ত তৈরি, জাতিসংঘের ওয়াল্ড হেরিটেজ সাইট চালু ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠনের প্রস্তাব তুলে ধরেন।

দি ইউএনডব্লিউটিও কমিশন ফর এশিয়া অ্যান্ড দ্যা প্যাসিফিক (ক্যাপ) ও দি ইউএনডব্লিউটিও কমিশন ফর সাউথ এশিয়ার (সিএসএ) সঙ্গে ইউএনডব্লিউটিও ফোরাম অন ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টের তিনদিনের এ সভায় ২০ দেশের ৮০ জন বিদেশি প্রতিনিধিসহ মোট ১৭০ জন অংশ নেন।


আরোও সংবাদ