‘শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণাকারীদের প্রতিহত করা হবে’

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৬ জানুয়ারি , ২০১৫ সময় ১০:৩১ অপরাহ্ণ

পুলিশের আইজি একেএম শহীদুল হক বলেছেন শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও জনগণকে সঙ্গে নিয়ে যারা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে তাদের প্রতিহত করা হবে। ভূল বিএনপি করেছে, আর খেসারত জনগণ দেবে তা হবে না। তিনি শুক্রবার রংপুরের মিঠাপুকুরে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। ১৪ জানুয়ারি মিঠাপুকুরের বাতাসনে যাত্রীবাহী বাসে অবরোধকারীদের পেট্রোলবোমার আঘাতে ৫ জন নিহতের ঘটনায় পুলিশের আইজি একেএম শহিদুল হক এবং র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ হেলিকপ্টার যোগে শঠিবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বেলা সাড়ে ১১টায় পৌঁছান। দূর্ঘটনা কবলিত এলাকা পরিদর্শন শেষে তারা মিঠাপুকুর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় মাঠে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, রাজনীতিবীদ, সুশীল সমাজের সাথে মতবিনিময় করেন। ৫ই জানুয়ারিতে বিএনপি’র সমাবেশ ডাকা ষড়যন্ত্রের একটি অংশ উল্লেখ করে পুলিশের মহাপরিদর্শক বলেন দেশব্যাপী অরাজকতা আর সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে বিএনপি। পরপর দু’বার প্রধানমন্ত্রী হয়েও বিএনপি নেত্রী আইনকে অবজ্ঞা করেছেন। তিনি বলেন, বেগম রোকেয়ার জন্মস্থান মিঠাপুকুরে মহিলাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে ব্যবহার করছে স্বাধীনতা বিরোধী চক্র। তারা নাশকতার কর্মকান্ডে কোমলমতি নারীদেরকে ব্যবহার করছে। এ থেকে পরিত্রাণের জন্য জনসচেতনতা বাড়াতে তিনি মাঠে থাকার আহ্বান জানান পুলিশ ও সাধারণ জনগণকে। তিনি বর্তমান সরকারকে গণতান্ত্রিক সরকার উল্লেখ করে বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে কোন সন্ত্রাসীকে ছাড় দেয়া হবে না। সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে সরকার ও জনগণের সাথে মাঠে থাকবে পুলিশ। সম্প্রাতিক সময়ে রংপুরের মিঠাপুকুরে স্বাধীনতা বিরোধী চক্র মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। মতবিনিময় সভার বিশেষ অতিথি র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ বলেন, ২০১৩ সালে রাষ্ট্রের গণশত্রুদের যুদ্ধ যেভাবে রুখে দেয়া হয়েছিল এবারও তা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে রুখে দেয়া হবে। জেলা প্রশাসক ফরিদ আহমেদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় কমিশনার দিলোয়ার বখত, রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি হুমায়ুন কবির, পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক পিপিএম, জেলা পরিষদ প্রশাসক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ।


আরোও সংবাদ