ইতিহাস তাদের ক্ষমা করবে না

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৪ নভেম্বর , ২০১৬ সময় ০৯:৪০ অপরাহ্ণ

বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতাকে হত্যার মধ্য দিয়ে গণতন্ত্র ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হত্যা করা হয়েছিল।  যারা সেদিন গণতন্ত্র হত্যা করেছিল তারাই পরে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা হিসেবে নিজেদের প্রচার করে প্রহসন করেছে।  যারা রাজনৈতিক নেতৃত্ব নির্মূল করে সামরিক সরকার প্রতিষ্ঠা করেছিল ইতিহাস তাদের কখনো ক্ষমা করবে না।

শুক্রবার (০৪ নভেম্বর) বিকেলে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, চট্টগ্রাম মহানগরের কমান্ডার মোজাফফর আহমদ এসব কথা বলেন।  মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড, চট্টগ্রাম মহানগর শাখা এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।

একই সভায় নগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদ বলেন, খুনীদের স্বপ্ন ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হত্যা করে দেশকে আবারও পাকিস্তান বানানোর।  তাদের স্বপ্ন ছিল গণতন্ত্র হত্যা করে দেশে স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠার।  তাদের সেই স্বপ্ন সাময়িক সফল হলেও এদেশের জনগণকে তারা বেশিদিন দাবিয়ে রাখতে পারেনি।  বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ১৫ আগস্ট এবং ৩ নভেম্বরের খুনিদের বিচার করে জনগণের আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটিয়েছেন।

সংগঠনের আহ্বায়ক মছরুর হোসেনের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব হোসেন সরওয়ারদীর সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন নগর যুবলীগের সদস্য এস এম সাঈদ সুমন, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সহকারী কমান্ডার এফ এ আকবর খান, নগর যুবলীগ সদস্য শেখ নাছির আহাম্মদ, দেলোয়ার হোসেন দেলু ও আশরাফুল গণি চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. সরওয়ার আলম চৌধুরী মনি, নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শাহেদ মুরাদ শাকু, নগর যুবলীগ সদস্য কাজী রাজিশ ইমরান, আশরাফুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সদস্য মিজানুর রহমান সজীব, সাজ্জাদ হোসেন, এম এ হায়দার, সাজিদ আনোয়ার, আবু সালেহ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নগর যুবলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন সুমন, এ আর কামরুল ইসলাম, মনজুরুল আলম রিমু, জাহেদ হোসেন রনি, অলিউর রহমান সোহেল, ইয়াছিন ভূঁইয়া, সাগর চৌধুরী, আশরাফুল আলম সিদ্দিকী, মুহিত আলী, মো.আদিদ, মো.আরিফ, বিপ্লব দাশ ও বিপুল দাশ।