শিশুহত্যা ও নির্যাতন বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন

প্রকাশ:| বুধবার, ৯ মার্চ , ২০১৬ সময় ০৯:২৫ অপরাহ্ণ

দেশজুড়ে ক্রমবর্ধমান শিশুহত্যা ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিশুসাহিত্যিক, সংগঠক, সংস্কৃতিকর্মী, সাংবাদিক ও চট্টগ্রামের উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা। ‘সর্বস্তরের শিশুসাহিত্যিক, সংগঠক ও সাংস্কৃতিক কর্মী’র ব্যানারে বুধবার বিকেল সাড়ে চারটায় নগরীর প্রেসক্লাব চত্বরে মানববন্ধন করে তারা এ প্রতিবাদ জানান।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন লেখিকা আনোয়ারা আলম, শিশুসাহিত্যিক রাশেদ রউফ, কবি কামরুল হাসান বাদল, ছড়াশিল্পী উৎপল কান্তি বড়ুয়া, আ ফ ম মোদাচ্ছের আলী, এমরান চৌধুরী, জসীম মেহবুব, আবুল কালাম বেলাল, রমজান আলী মামুন, কবি সাইদুল আরেফীন, খেলাঘর মহানগর সংগঠক কবি আশীষ সেন, খেলাঘর মহানগরী সংগঠক অধ্যাপিকা রোজী সেন, খেলাঘর সংগঠক জাহিদ হোসেন, উদীচীর চট্টগ্রাম জেলা সহ-সভাপতি সুনীল ধর, শিক্ষিকা সালমা জাহান মিলি, শিশুসংগঠক সৈয়দা শাহানা বেগম, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল, যুব ইউনিয়ন নেতা হাবিবুল হক বিপ্লব ও তরুণ লেখক সংঘ সংগঠক ইলিয়াস বাবর। বিগত চার বছরে শিশুহত্যা ও নির্যাতনের পরিসংখ্যান ও সংশ্লিষ্ট তথ্য তুলে ধরে স্বাগত বক্তব্য দেন সাংবাদিক জুবায়ের জুয়েল।

বক্তারা বলেন, বাঙালি জাতির ইতিহাস মানবিকতা ও সহনশীলতার ইতিহাস। এ জাতি বহির্শত্রুর দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে, প্রতিরোধ গড়েছে, কিন্তু অন্য দেশে আগ্রাসন চালায়নি। একটি শিশু শুধু তার মা-বাবার নয়, গোটা সমাজের মমতায় বেড়ে উঠেছে। কিন্তু আজ আমরা আমাদের মূল্যবোধ হারিয়ে অবক্ষয়ের দিকে যাচ্ছি। মানবিকতা হারিয়ে স্বার্থবাদী অসুস্থ মানসিকতার বলি হচ্ছে অবুঝ শিশু। রাজনৈতিক নেতা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, প্রতিবেশী, এমনকি মা-বাবার কাছেও শিশুর নিরাপত্তা নেই। শিশুহত্যা ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে কঠোর আইন ও দ্রুত বিচার না হওয়ায় প্রতিনিয়ত সহজ টার্গেটে পরিণত হচ্ছে জাতির ভবিষ্যৎ।

বক্তারা শিশুহত্যা ও নির্যাতন বন্ধে কঠোর আইন ও দ্রুত বিচারের পাশাপাশি বিদেশি সিরিয়ালের মাধ্যমে অসুস্থ চিন্তার প্রসার ঘটানো টিভি চ্যানেলগুলো বন্ধের দাবি জানান। এছাড়া সরকারের পাশাপাশি শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, সংস্কৃতিকর্মী, সাংবাদিক, ধর্মগুরুসহ সমাজের প্রত্যেককে শিশুবান্ধব সমাজ পুনরুদ্ধারে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।