শিশুর বুদ্ধিমত্তায় ধরা খেল চোর

প্রকাশ:| বুধবার, ৪ মে , ২০১৬ সময় ১০:২১ অপরাহ্ণ

প্রতীকী

প্রতীকী

১২ বছর বয়সী এক শিশুর বুদ্ধিমত্তার জোরে ধরা পড়েছে এক চোর। ছেলেটির নাম নাহিদ হাসান শুভ। তাদের বাসাটিও চুরির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে।

বুধবার (০৪ মে) দুপুরে নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানার বালুছড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

বায়েজিদ বোস্তামি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন জানান, বালুছড়ায় কাসেম কোম্পানির বাড়ির দ্বিতীয় তলার তিন নম্বর বাসায় ভাড়া থাকেন স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ভাড়া থাকেন মো.দুলাল।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দুলালের স্ত্রী জেসমিন আক্তার ছেলে শুভকে নিয়ে পাশের বাসায় যান। কিছুক্ষণ পর শুভকে আবার বাসায় পাঠান কিছু টাকা আনার জন্য। শুভ বাসায় গিয়ে দেখতে পায় দরজা-জানালা খোলা।

এসময় শুভ বাসার ভেতরে ঢুকে দেখতে পায়, এক নারী ওই বাসায় ঢুকে বিভিন্ন জিনিসপত্র নিজের শরীরের ভেতরে লুকাচ্ছে। তখন শুভ ঢুকে তার পরিচয় জানতে চায়। ওই নারী শুভকে জাপটে ধরলে সে হাতে কামড় দিয়ে দ্রুত বাইরে বেরিয়ে আসে। এরপর দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে দিয়ে চোর, চোর বলে চিৎকার করতে থাকে।

চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে ওই নারীকে আটক করে পিটুনি দেয়। খবর পেয়ে দুপুর দেড়টার দিকে পুলিশ ওই বাসায় যায়। এসময় আসামির শরীরে তল্লাশি চালিয়ে নগদ এক হাজার ৪২০ টাকা, একটি কানের স্বর্ণের ঝুমকা, তিনটি স্বর্ণের আংটি উদ্ধার করে।

গণপিটুনিতে আহত ওই চোরকে পুলিশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ওসি ‍জানান, ওই চোরের নাম লাকী বেগম (৪০)। তাদের বাড়ি বায়েজিদ বোস্তামি থানার ট্যানারি বটতল এলাকায়।

এ ঘটনায় দুলাল বাদি হয়ে বায়েজিদ বোস্তামি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে ওসি জানিয়েছেন।