শিশুদের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| রবিবার, ১৮ মার্চ , ২০১৮ সময় ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের স্থপতি নন, তিনি বিশ্বের শোষিত মানুষের মুক্তির প্রেরণা। বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা, জাতীয় পতাকা ও মুক্তিযুদ্ধ দিয়েছিলেন। তাঁর আকাক্সক্ষা ছিলো বাঙালির অর্থনৈতিক মুক্তি। কিন্তু সেই সুযোগ তিনি পাননি। একাত্তরের পরাজিত শক্তি পরিকল্পিতভাবে ৭৫ এর ১৫ আগস্টের কালো রাত্রিতে তাঁকে স্বপরিবারে হত্যা করে দেশকে পাকিস্তানী ভাবধারায় ফিরিয়ে নেয়। স্বাধীনতা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিভিন্ন সময়ে তারা ভুলুণ্ঠিত করেছে। বাঙালি জাতির হৃদয় থেকে কখনো বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলা যাবে না। তিনি আজ সকালে স্থানীয় রীমা কনভেনশন সেন্টারে বঙ্গবন্ধুর ৯৯ তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৮ পালনোপলক্ষে আলোচনা সভায় একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নে নিরলস প্রয়াত অব্যাহত রেখে চলেছেন। দেশকে তিনি উন্নয়নের মহাসড়কে দাঁড় করিয়েছেন। বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির রোল মডেল। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শিশুদের ভালবাসতেন। এই শিশুরাই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার ভবিষ্যত কারিগর। এদেরকে লেখা পড়ায় জ্ঞান-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ করতে হবে। তা হলেই বাংলাদেশ মুক্তির আলোয় উদ্ভাসিত হবে।
সভাপতির ভাষণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, যারা যে কারণ ও উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিলো তাদের সেই কুমতলব হাসিল হয়নি। জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু অনেক শক্তিশালী। তাঁর জীবন দর্শন ও স্বপ্ন বাঙালির অন্তরে আমুল প্রোথিত। তিনি আরো বলেন, সামনেই জাতীয় নির্বাচন। এই সরকারের নজীরবিহীন সাফল্য, গণতন্ত্র, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের সুরক্ষায় শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় বসাতে হবে। তিনি দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে দলের কর্মকান্ডে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণের উদাত্ত আহ্বান জানান। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন মঞ্চে শিশু কিশোরদের নিয়ে বিশাল একটি জন্মদিনের শুভেচ্ছা কেক কেটে শিশু কিশোর সমাবেশের শুভ সূচনা করেন। এতে শিশুদের মধ্যে উপস্থিত বক্তৃতা করেন অর্পিতা ঘোষ, তৌফিক আহমেদ, রায়ান আহমেদ এবং বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত করে বিশেষ সঙ্গীত পরিবেশন করেন জাতীয় সঙ্গীত শিল্পী মহানগর আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য শেখ শহীদুল আনোয়ার এবং কবিতা আবৃত্তি করেন মহানগর আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আবদুল লতিফ টিপু। উক্ত শিশু কিশোর সমাবেশে আনন্দঘন সভামঞ্চে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. সুনীল কুমার সরকার, আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ রশিদ, উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক চৌধুরী, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, হাজী জহুর আহমেদ, আবদুল আহাদ, আবু তাহের, ইঞ্জিনিয়ার মানস রক্ষিত, দিদারুল আলম চৌধুরী, শহিদুল আলম, জহরলাল হাজারী, কার্যনির্বাহী সদস্য এম এ জাফর, হাজী মো: ইয়াকুব, আবুল মনসুর, নুরুল আলম, গাজী শফিউল আজিম, কামরুল হাসান ভুলু, মহব্বত আলী খান, গৌরাঙ্গ চন্দ্র ঘোষ, বখতিয়ার উদ্দিন খান, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, অমল মিত্র, মোহাম্মদ ইলিয়াছ, হাজী বেলাল আহমদ, থানা আওয়ামী লীগের আলহাজ্ব ফিরোজ আহমদ, হারুনুুর রশিদ, ছিদ্দিক আলম, আবু তাহের, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের শামসুল আলম, নুরুল আমিন কালু, নুরুল আজিম নুরু, হাজী শফিউল আলম, আবদুর রহমান, আবুল কাশেম, দিলদার খান দিলু, আশরাফুল আলম, আবুল হাশেম বাবুল, মোরশেদুল আলম, শওকত আলী, ফয়েজউল্লাহ বাহাদুর, এড. আইয়ুব খান, আলহাজ্ব আশফাক আহমেদ, আবছার উদ্দিন চৌধুরী, মোছলেম উদ্দিন, সৈয়দ মো: জাকারিয়া, মো: সিরাজুল ইসলাম, কাজী রাশেদ আলী জাহাঙ্গীর, আবদুর রহিম, শেখ সরওয়ার্দী, দলিলুর রহমান, আবদুল মালেক, মো: জসিম উদ্দিন, নিজাম উদ্দিন নিজু, সাইফুদ্দিন খালেদ সাইফু, সলিমউল্লাহ বাচ্চু, মোহাম্মদ মুছা প্রমুখ। আলোচনা সভার আগে সকালে দারুল ফজল মার্কেটস্থ কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করা হয়।