মিডিয়া সংলাপে সম্পৃক্ত করায় শিল্পীরা উৎফুল্ল

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৯ মার্চ , ২০১৬ সময় ১১:১৫ অপরাহ্ণ

নিজউচিটাগং২৪.কম’র গোলটেবিল বৈঠকে চট্টগ্রামের কণ্ঠশিল্পী, গীতিকার, সুরকার, যন্ত্রশিল্পী

গোল টেবিলচট্টগ্রামের প্রথম ২৪ঘণ্টার অনলাইন পত্রিকা নিজউচিটাগং২৪.কম’র নির্বাহী সম্পাদক মির্জা ইমতিয়াজ শাওন এর সভাপতিত্বে ও গীতিকার- বিনোদন সাংবাদিক আশিক বন্ধু সঞ্চালনায় চট্টগ্রামের শিল্পীদের প্রচার-প্রসারে মিডিয়ার ভূমিকা শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক এ অংশ নেন চট্টগ্রাম বেতার ও টেলিভিশন শিল্পী কল্যাণ সংস্থার সভাপতি মো খায়রুল আলম, চট্টগ্রাম মঞ্চ সঙ্গীত শিল্পী সংস্থার সভাপতি আলাউদ্দিন তাহের, গীতিকার সংসদ চট্টগ্রাম‘র সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এস এম খুরশীদ, বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশন এর সুরকার সঙ্গীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী সাইফুদ্দিন মাহমুদ খান, চট্টগ্রাম যন্ত্রশিল্পী সংস্থার সিনিয়র সহ-সভাপতি রতন মুজমদার, চট্টগ্রাম মিউজিক্যাল ব্যান্ড এসোসিয়েশন অর্থ সম্পাদক ও সাসটেইন ব্যান্ড এর প্রতিনিধি এরশাদ উল আলম, বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশন সুরকার সঙ্গীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী তাপস চৌধুরী, বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশন এর গীতিকার এস আনিস আহমেদ বাচ্চু, বেতার ও টিভির সঙ্গীত শিল্পী নাদিরা পারভিন পারুল, বেতার ও টিভির সঙ্গীত শিল্পী লুবনা জান্নাত, সাংবাদিক বাবুল হোসেন বাবলা, চাটগাঁ দ্যা ব্যান্ড এর প্রতিনিধি প্রসেনজিৎ মহাজন, সঙ্গীত শিল্পী মাহী চৌধুরী, সঙ্গীত শিল্পী মো শহিদুল ইসলাম জনি, বৈঠকে সমন্বয়ক ছিলেন- নিজউচিটাগং২৪ফ্যান ক্লাব’র সাধারন সম্পাদক ইলিয়াস বাবর, সহযোগী ছিলেন- সাংবাদিক শরিফুল ইসলাম রুকন, নিজউচিটাগং২৪.কমের সহ-সম্পাদক মিজান মনির, নিজউচিটাগং২৪.কমের ডিজাইনার সুবাইল মুসা, নিজউচিটাগং২৪.কমের বিপণন কর্মকর্তা আনিসুর রহমান, নিজউচিটাগং২৪.কমের ডিজাইনার পলাশ, জীবন।

নিজউচিটাগং২৪.কম’র গোলটেবিল বৈঠকে2

চট্টগ্রামের শিল্পীদের প্রচার-প্রসারে মিডিয়ার ভূমিকা শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক এ অংশ নেয়া শি্ল্পীদের বক্তব্যের সার-সংক্ষেপ তুলে ধরা হলো-

এসএম খুরশিদ: জাতীয় সংকটে মুক্তি বিষাদে আনন্দ শোকে সান্তনায় একজন সঙ্গীত শিল্পীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। গীতকবিরা পাচরসের আশ্চায্য মিশেলে তুলে আনেন মানুষের সুখ-দুঃখ। কিন্তু শিল্পীকে তুলে ধরতে মিডিয়ার ভূমিকা অনস্বীকার্য। অন্ধকারে থাকা মানুষদের আলো আনতে, পর্দার পেছনের মানুষদের সামনের আনতে মিডিয়া কাজ করে যায়। ঢাকা সবসময়েই চট্টগ্রামকে মফস্বল হিসেবে করে, আমরা এর অবসান চাই। গীতিকারেরা বর্তমানে অবহেলিত ও বঞ্চিত। এ অবস্থায় আজকের আয়োজন খুবই গুরুত্ববহ। এ জন্য আমরা আয়োজকদের ধন্যবাদ-কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

সাইফুদ্দিন মাহমুদ খালেদ: ঢাকাতে কাজ করেও চট্টগ্রামে মিডিয়া কভারেজ পাওয়া যায়। কিন্তু চট্টগ্রামে কাজ করলে ঢাকা সেভাবে হাইলাইটস করা হয় না। এমনকি অনেক জাতীয় দৈনিক এর চট্টগ্রাম পাতাটি শুধুমাত্র চট্টগ্রামেই সীমাবদ্ধ রেখেছে যা কাম্য নয়। বর্তমানে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রে কোন গানের অনুষ্ঠান হচ্ছেই না। শুধুমাত্র টক শো দিয়ে একটা টিভি কেন্দ্র চলতে পারে না। সেদিক দিয়ে বাংলাদেশ বেতার চট্টগ্রাম কেন্দ্র অনেক এগিয়ে। এ ব্যাপারে সিটিভির জিএম’র ভূমিকা খুবই নাজুক। আশার কথা প্রথমবারের মত নিউজচিটাগং২৪.কম যে আয়োজন করল তার মাধ্যমে হলেও আমরা ক্ষোভ প্রকাশ করার সুযোগ পেলাম। এ জন্য চট্টগ্রামের প্রথম ২৪ঘন্টার অনলাইন পত্রিকা ও স্বনামধন্য এ অনলাইন পোর্টালকে আন্তরিক মুবারকবাদ।

আলাউদ্দিন তাহের: কোান অনলাইন পত্রিকার প্রথম গোল টেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবং এতে শিল্পীদের সম্পৃক্ত করায় আমরা উৎফুল্ল। চট্টগ্রামের শিল্পীরা অবহেলিত হলেও সারাদেশের শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে কিন্তু আমরাই লিড দিচ্ছি। কিন্তু আমাদের টিভি চ্যানেল গুলো সেভাবে চট্টগ্রামের শিল্পীদের মূল্যায়ন করে না। ডাকলেও তা অনেকটা অবমূল্যায়নের পর্যায়ে নিয়ে যায়। সবাই যদি ঢাকামুখী হয় তো চট্টগ্রাম কি নিয়ে থাকবে! লোকাল মিডিয়াগুলো আমাদের কভারেজ দেই, কিন্তু তা চট্টগ্রামেই সীমাবদ্ধ। অনেক আন্দোলন-সংগ্রামের ফসল সিটিভিকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ৩৬ কোটি টাকার অনুমোদন দিয়েছেন, কিন্তু তা দিয়ে কি হচ্ছে জানার সুযোগ নেই। প্রধানমন্ত্রীকে এখানে কি হচ্ছে, প্রকৃত অবস্থা জানার সুযোগ দিচ্ছে না অসাধু চক্ত। চট্টগ্রামের সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে সিটিভির গুরুত্ব অপরিসীম। মুক্তিযুদ্ধের সরকার কেন এমন করছে বা আমাদের নেতারা কেন এতদিন নীরব এসব প্রশ্নের উত্তর চাই আমরা। তদন্ত করতে হলে সবাইকে ডাকতে হবে। সর্বশেষ আয়োজকদের সবাইকে ধন্যবাদ।

মো. কায়সারুল আলম: সাংবাদিকরা জাতির বিবেক। শিল্পীদের শেষ ঠিকানা। ডিজি মহোদয, মেয়র-মন্ত্রী মহোদয়দের স্মারকলিপি দেয়ার পরেও সিটিভির অচলাবস্থা কোন সুরাহা হচ্ছে না। ঢাকাই থাকলেই হিরু; আমরা চট্টগ্রামকে ভালোবাসি বলেই এখানে আছি। অথচ ঢাকায় এক গ্রেড শিল্পীরা যে সম্মানি পায়, চট্টগ্রামের শিল্পীরা পায় তার অর্ধেক। চট্টগ্রামকে তুলে ধরতে মিডিয়ার ভূমিকা যে কত গুরুত্বপূর্ণ তা অনুধাবন করাই চট্টগ্রামের প্রথম ২৪ঘন্টার অনলাইন পত্রিকা নিউজচিটাগং২৪.কম’কে অভিনন্দন।

এস আনিস আহমেদ বাচ্চু: আমাদের প্রচার দেশব্যাপী নয় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীক। এর দায় মিডিয়ার কাধেও পড়ে। চট্টগ্রামের প্রথম ২৪ঘন্টার অনলাইন পত্রিকা নিউজচিটাগং২৪.কম এ আয়োজন করে দেখিয়ে দিলেন তারা সচেতন। দেশিয় শিল্প রক্ষায় শিল্পীদের সম্মান জ্ঞাপনে।

তাপস চৌধুরী: মূল্যায়ন করার মানুষ যথেষ্ট থাকলেও আমরা তা করছি না। সিটিভির অননিয়ম দেখার জন্য কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করছি।

নাদিরা পারভিন পারুল: ঢাকাই থাকলে আর্নজাতিকভাবে স্বীকৃতি পাওয়া যায়। কিন্তু চট্টগ্রামে থাকলে তা হয় না। সিটিভির অডিশনের ৩ বছর পার হলেও এখনো অডিশন সম্পন্ন হয়নি কেন? যোগ্যদের যথার্থ সম্মানই আমরা দাবি করছি সবসময়।

লুবনা জান্নাত: মুক্তকণ্ঠে আজ কথা বলার সুযোগ দেয়াই চট্টগ্রামের প্রথম ২৪ঘন্টার অনলাইন পত্রিকা নিউজচিটাগং২৪.কম’কে ধন্যবাদ। আমরা দেখি, ঢাকা থেকে শিল্পী আসলে সম্মানি হয় প্রচুর। কিন্তু চট্টগ্রামের শিল্পীদের ক্ষেত্রে হয় উল্টো। এর অবসান চাই।

মাহী চৌধুরী: পরিচিত বা কমনিকেশন থাকলে ঢাকার চ্যানেলে সুযোগ পাওয়া যায়। এ ক্ষেত্রে সময় সুযোগ আর বাজেটের দিকেও তাদের নজর থাকে। সংস্কতির রাজধানী কিন্তু চট্টগ্রামেই। তাই এখানকার শিল্পীদের ইউনিটি দরকার। শিল্পীদের চট্টগ্রামমুখী করার দায়িত্ব মিডিয়ার।

এরশাদুল আলম: আমরা আমাদেরকেই ধ্বংস করছি। চট্টগ্রামের মিডিয়া কম এ জন্য আমাদেরকে দেশব্যাপী যোগাযোগ রক্ষা করতে হবে। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টগুলোই শিল্পকে ডোবানোর মূল কারণ। ব্যবসায়ীকে দিয়ে তো আর শিল্প হয় না। এ জন্য চাই ইনষ্টিটিউশন। চাই একতা।

প্রসেনজিৎ মহাজন: রিয়েলিটি শোই পরিচয়ের বড় মাধ্যম। কিন্তু ওখানে শুধু ভালো গান করলেই হয় না। আরো অনেক কিছু লাগে। আমরা চাই, মিডিয়া প্রকৃত অবস্থান তুলে ধরুক।

বাবুল হোসেন বাবলা: বেতার টিভিকে প্রথমত ডিজটালাইস্ট করতে হবে। মিডিয়ায় সৃষ্ট সিন্ডিকেট গুলো ভাঙতে হবে। অবহেলার কারণে অনেক ভালো কাজ হচ্ছে না।

আশিক বন্ধু: শিল্পীদের প্রচারে মিডিয়া সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। চট্টগ্রামের সাংবাদিকদেরকেই তুলে ধরতে হবে এখানকার শিল্পীদের। আমি সাধ্যমত চেষ্টা করব ঢাকায় আমার অবস্থান থেকে চট্টগ্রমাকে তুলে ধরতে।

মির্জা ইমতিয়াজ শাওন: আমাদের সাধ্য কম হলেও সাধ অনেক। যখন অনলাইন ধারণাটি খুব প্রচলিত হয়নি, তখন আমাদের যাত্রা শুরু। চট্টগ্রামের প্রথম ২৪ঘন্টার অনলাইন পত্রিকা নিউজচিটাগাং২৪ একটু অন্যভাবে কাজ করে। আমরা স্বপ্ন ও চট্টগ্রামকেই ফেরি করি। এবং দলকানা কিম্বা দল দাস হয়ে নয় দল নিরপেক্ষ থেকে চট্টগ্রামের সংবাদ সবার কাছে পৌছে দিতে ২৪ ঘন্টা আমরা কাজ করি। চট্টগ্রামের শিল্পীদের কভারেজ দানে এবং ইতিবাচক কর্মকান্ড তুলে ধরার শুভ প্রয়াস আমাদের অব্যাহত থাকবে। তবে শিল্পীদেরও দেশিয় সংস্কৃতি আবহমান সম্পীতির এবং শেকড়ের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। আজকের ক্ষুদ্র আয়োজনে আলোচক, সঞ্চালক ও সংবাদকর্মীদের ধন্যবাদ জানাই। ভালো ও শুভ কাজে সবসময়ই আমাদের পাশে পাবেন আপনারা। ২৪ ঘন্টা সত্য খবর জানতে আমাদের সাথে থাকুন, ভালো থাকুন।


আরোও সংবাদ