শিরক ও বিদ’আত মুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে হবে

প্রকাশ:| সোমবার, ২৭ মার্চ , ২০১৭ সময় ১০:৩২ অপরাহ্ণ

পশ্চিম পটিয়া মালিয়ারা তাফসীরুল কোরআন মাহফিলে বক্তারা

পশ্চিম পটিয়া মালিয়ারা ইসলামী ছাত্র-ঐক্য পরিষদ কর্তৃক মালিয়ারা বটতল ঈদগাহ মাঠে বিশাল তাফসীরুল কোরআন মাহফিল গতকাল ২৬ মার্চ বিকাল ৩টা অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে সভাপতিত্বে করেন আল জামেয়াতুল আরবিয়াতুল ইসলামিয়া জিরি মাদরাসার সিনিয়র শিকষক মাওলানা মুফতি মো: শোয়েব। প্রধান মুফাস্সির ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন মুফাস্সিরে কোরআন আল্লামা মুফতি হাবিবুর রহমান মিসবাহ কোয়াকাটা। প্রধান বক্তা ছিলেন কুমিল্লা আল আরাফ ইসলামীয়া মাদরাসার মহাপরিচালক মাওলানা রাশেদুল ইসরাম রহমতপুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন আল জামেয়াতুল আরবিয়াতুল ইসলামিয়া জিরি মাদরাসার মহাপরিচালক পীরে কামেল আল্লামা শাহ মো: তৈয়ব সাহেব। বিশেষ আলোচক ছিলেন মাওলানা মোহাম্মদ হোসাইন, মাওলানা ফরিদ আনসারী, মাওলানা হাফেজ মো: মিয়া। উপস্থিত ছিলেন ছাত্রÑঐক্য পরিষদের অন্যতম নেতা মো: শাহজাহান, মো: জাকের, মো: মহিউদ্দিন, মো: ইমরান, ইমন, নোমান, আরমান, রাহাত, বুরহান, মহিউদ্দিন বাছা, আজাদ, শাহাদাত, শাকিল, সাজ্জাদ, বেলাল, নঈম, আতাউল্লাহ. মো: হামিদ মন্জু, ওয়াজেদ প্রমুখ।
প্রধান মুফস্সির মুফতি হাবিবুর রহমান মিসবাহ বলেন, ইসলাম নিয়ে কোন তর্ক বিতর্ক করার প্রয়োজন হয় না। কোরআন হাদিসের সঠিক জ্ঞান অর্জন করে সত্যের পথের সন্ধ্যান নিজেই নিতে পারবে। শিরক ও বিদআতকে ত্যাক করে ইসলামের সঠিক পথে আমাদেরকে ফিরে আসতে হবে। আমরা ফিরে না আসা পর্যন্ত বাংলার এই জমিনে আল্লাহর রহমত নাজিল হবে না। আল্লাহর নেয়ামতের শুকরিয়া স্বরূপ আমাদেরকে তারই পথে চলতে হবে। তার বিধান মতে সমাজ ও দেশ পরিচালনা করতে হবে। তিনি শিরক ও বিদআত মুক্তি সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহবান জানান।