শিপ ব্রেকার্স অ্যাসো’র নির্বাচন স্থগিতের নির্দেশ

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর , ২০১৭ সময় ০৮:২৫ অপরাহ্ণ

 

বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএসবিএ) নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। বিচারপতি নাজমা হায়দার এবং আবু তাহের মো.সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ এই আদেশ দিয়েছেন।

 

গত ৩১ অক্টোবর ইয়ার্ড মালিক এস এম আল নোমান রিট আবেদনটি করেন । শুনানি শেষে আদালত মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) চার সপ্তাহের জন্য নির্বাচন স্থগিতের আদেশ দেন।

বুধবার (৮ নভেম্বর) সকাল থেকে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে অবস্থিত অ্যাসোসিয়েশনের কার্যালয়ে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। আগামী দুই বছরের জন্য কার্যনির্বাহী কমিটি গঠিত হওয়ার কথা ছিল ১৫২ জন ভোটারের ভোটে।

বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আবু তাহেরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি আদালতের আদেশ সম্পর্কে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন। রিট আবেদনকারীর পক্ষে আদেশের কপি অ্যাসোসিয়েশনের সচিব মোহাম্মদ সিদ্দিকের কাছে মঙ্গলবার দুপুরে নেয়া হলে তিনি সেটি গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানান।

এই প্রসঙ্গে সিদ্দিকের কাছে জানতে চাইলে পরিচয় জানার পর তিনি একটি অনুষ্ঠানে আছেন জানিয়ে কোন কথা না বলেই ফোনটি কেটে দেন।

এদিকে রিট আবেদনকারী এস এম আল নোমান বলেন, আদালতের আদেশ নিয়ে অ্যাসোসিয়েশনের কার্যালয়ে গেলে সেটি গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন সচিব। আমরা এই ব্যাপারে ডবলমুরিং থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেব।

এদিকে আদালতের আদেশের বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর থেকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও চট্টগ্রাম চেম্বারের পরিচালক মাহফুজুল হক শাহকে পাওয়া যাচ্ছে না। তার ব্যবহৃত মোবাইলটিও রহস্যজনক কারণে বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

নির্বাচন বোর্ডের অপর সদস্য আরিফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি আদালতের কোন আদেশ পাননি বলে জানান। তিনি এও জানান, এই ধরনের কোন আদেশ এলে নির্বাচন বোর্ড বসে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

বিষয়টি সম্পর্কে সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত বলেন, ‘উচ্চ আদালতের কোন আদেশ কেউ যদি গ্রহণ না করে একতরফাভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এরকম নির্বাচন সম্পন্ন করে তাহলে সেটি হবে আদালত অবমাননার শামিল। এটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ।’


আরোও সংবাদ