শিখরের ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ০৮:৫৬ পূর্বাহ্ণ

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন শিখর এর প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠানে নেগেটিভ গ্রুপের রক্তদাতা ও রক্ত সংগ্রহকারী সংগঠণগুলোকে সম্মাননা প্রদান করেছে। চট্টগ্রাম বিভাগে রক্ত সংগ্রহ ও রক্ত নিয়ে কাজ করা ১৮ টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠননের স্বেচ্ছাসেবক এসময় উপস্থিত ছিল।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বনবিদ্যা ও পরিবেশ বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সঞ্চয় অধিদফতরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় উপ-পরিচালক শাহানারা বেগম,চন্দনাইশ আমানতছফা বদরুননপছা মহিলা ডিগ্রি কলেজ এর অধ্যক্ষ মোঃ আবুল খায়ের, সাবেক ব্যাংক ম্যানেজার ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক জাফর উল্লাহ চৌধুরী ও লিও জেলা ৩১৫ বি৪ বাংলাদেশ এর প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট লিও সাইফুল করিম আরিফ সহ অন্যান্যরা।অনুষ্ঠানে শিখর প্রতিষ্ঠার পর থেকে অদ্যাবধি কার্যক্রমের স্থিরচিত্রের সমন্বয়ে একটি সালতামামিমূলক ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।অতিথিরা শিখরের বিগত বছরের সেবামূলক কার্যক্রিমের ভূয়সী প্রশংসা করে মানব সেবার মাধ্যমে সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য শুভ কামনা করেন। গত ১৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের আব্দুল খালেক মিলনায়তনে সংগঠনটির প্রচার সম্পাদক মোকতাদীর রহমান এর সঞ্চালনায় ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহতাব রুমির স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শিখর এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মো. মাসুদুর রহমান। তিনি তার বক্তব্যে শিখর এর মাধ্যমে একটি নেগেটিভ ব্লাড ব্যাংক ও স্বপ্ন পূরণ পাঠশালা প্রতিষ্ঠার জন্য অতিথিদের কাছে সহযোগিতা কামনা করেন। এছাড়া প্রতি বছর মানব সেবায় উল্লেখজনক ভাবে অবদান রাখায় শিখর এর একজন করে সদস্যকে সেরা ভলান্টিয়ার ঘোষণা করা হবে বলে জানান সভাপতি মাসুদুর রহমান। সেই ধারাবাহিতায় এবছর সেরা ভলান্টিয়ার হিসেবে শিখরের যুগ্ম প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত বড়ুয়াকে ঘোষণা করা হয়। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের আগস্ট মাসে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের অনেক গুলো জেলা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে জন দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। তখন চট্টগ্রাম কলেজ রাষ্ট্র বিজ্ঞানে পড়ুয়া ছাত্র মোঃ মাসুদুর রহমান তার সমাজকর্মী বন্ধু, ওমরগনি এম ই এস কলেজ এ অধ্যয়নরত জয়ন্ত বড়ুয়া ও চট্টগ্রাম সরকরি সিটি কলেজে অধ্যয়নরত জিহাদ সামিরকে নিয়ে বন্যার্তদের সহযোগিতার উদ্দেশ্যে শিখর নামক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন।