শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণের লক্ষ্যে কর্মবিরতি পালিত

প্রকাশ:| সোমবার, ৩১ জুলাই , ২০১৭ সময় ০৯:৫৩ অপরাহ্ণ

কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (বাশিস) ও বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস) এর উদ্যোগে সমগ্র শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণের লক্ষ্যে ৮ম পে-স্কেলে ঘোষিত ৫% বার্ষিক প্রবৃদ্ধি, পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা, শতকরা হারে ঘরভাড়া, চিকিৎসা ভাতা ও অবিলম্বে বৈশাখী ভাতা প্রদান সহ বর্ধিত ৪% কর্তনের সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ প্রত্যাহার এবং অবসর ভাতা ও কল্যাণ ফান্ডের জন্য প্রতি অর্থ বছরে ৬০০ কোটি টাকা টাকা ভুর্তুকি প্রদানের দাবিতে গতকাল সোমবার (৩১ জুলাই) চট্টগ্রাম অঞ্চলের আওতাধীন চট্টগ্রাম জেলা, মহানগর, উত্তর, দক্ষিণ, কক্সবাজার জেলার ৩ শতাধিক স্কুল ও কলেজে দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালন করেছে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারিরা। কর্মবিরতি পালনকালে প্রাত্যহিক সমাবেশ করে শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়। ক্লাস বর্জনের পাশাপাশি দাবি সমূহের যৌক্তিকথা তুলে ধরে ম্যানেজিং কমিটি, গর্ভনিং বডি, শিক্ষক পরিষদ ও অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময় করেছে স্ব স্ব বিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষক পরিষদ। সভায় বক্তারা সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নীরব ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এতে শিক্ষামন্ত্রীর ব্যর্থতা ও সরকারি আমলাদের স্বৈরাচারি মনোভাবকে দায়ী করেন ক্ষুব্ধ শিক্ষক সমাজ। গতকাল সোমবার দিনব্যাপী স্বর্তঃস্ফূর্তভাবে কর্মবিরতি পালন করায় চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে আগামী দিনের কঠোর আন্দোলনের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণের আহ্বান জানান বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (বাশিস) ও বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস) চট্টগ্রামের নেতৃবৃন্দ। বাশিস চট্টগ্রাম অঞ্চলের সভাপতি সৈয়দ লকিতুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক অঞ্চল চৌধুরী, বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি অধ্যাপক উত্তম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আবুল মনসুর মো: হাবিব, বাশিস চট্টগ্রাম অঞ্চলের শিক্ষক সংগ্রাম কমিটির চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ, আহ্বায়ক শিমুল মহাজন, চট্টগ্রাম মহানগরীর সভাপতি নুরুল হক ছিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কানুনগো, উত্তর জেলার সভাপতি রনজিত নাথ, সাধারণ সম্পাদক মো: জানে আলম, দক্ষিণ জেলার সভাপতি মো: ওসমান গণি, সাধারণ সম্পাদক ছগীর মোহাম্মদ, কক্সবাজার জেলা সভাপতি মুজিবুল হক, সাধারণ সম্পাদক মো: ছৈয়দ করিম, বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি অধ্যক্ষ মো: রফিক উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক তড়িৎ কুমার ভট্টাচার্য্য, চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি অধ্যাপক নোমান আহমাদ ছিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অজিত দাশ প্রমুখ। শিক্ষক নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে বলেন, সর্বাত্মক এই কর্মসূচি শিক্ষক আন্দোলনকে আরো বেগবান করবে। নেতৃবৃন্দ পরবর্তী কর্মসূচি ০১-২০ আগস্ট শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ সহ ৬ দফা দাবির স্বপক্ষে সারাদেশের এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারি ও অভিভাবকদের স্বাক্ষর সংগ্রহ ও ১০ সেপ্টেম্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর শিক্ষক ও অভিভাবকদের স্বাক্ষর সংযুক্ত স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচির পাশাপাশি ঐক্যবদ্ধ শিক্ষক আন্দোলনের গুরুত্ব আরোপ করেছেন।