শিক্ষার্থীদের মাঝে জনপ্রিয়তা অর্জন করলে নেতা হওয়া যাবে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৯:৪২ অপরাহ্ণ

 

সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে জনপ্রিয়তা অর্জন করার মাধ্যমে ছাত্রলীগ নেতা হওয়া যাবে। ছাত্রলীগের রাজনীতি ছাত্রবান্ধব হওয়া প্রধান শর্ত তাই ছাত্রনেতাদের শিক্ষাবান্ধব কর্মকান্ড জড়িত হওয়ার আহবান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নূরুল আজিম রনি।
দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী সরকারের সফলতার ৩য় বর্ষ উদযাপন ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রলীগের করনীয় শীর্ষক এক ছাত্র সমাবেশ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ১৭ নং পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডের উদ্যোগে স্থানীয় এলাকায় আজ বিকাল ৩ ঘটিকায় অনুষ্ঠিত হয়।
ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা তানভীর মেহেদী মাসুদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে এসময় নূরুল আজিম রনি বলেন, ছাত্রলীগকে কেউ লাঠিয়াল বাহিনী বানিয়ে স্বার্থ হাসিলের রাজনীতি করতে পারবেনা। ছাত্রলীগের অভিভাবক কেবল দেশরতœ শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শেখ হাসিনার ঐতিহাসিক জাতীয় শিক্ষা নীতির মূল বিষয়বস্তু গুলোকে সামনে রেখেই বর্তমানে পরিচালিত হচ্ছে। একটি বৈষম্যহীন শিক্ষা ব্যাবস্থার যে স্বপ্ন পিতা মুজিব জাতির সামনে উপস্থাপন করেছিলেন তার নিমিত্তেই শেখ হাসিনার বর্তমান শিক্ষা নীতিমালা প্রনয়ন হয়েছে। আর এই নীতিমালার আলোকে সহজলভ্য শিক্ষা ব্যাবস্থা সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে পৌছে দিয়ে ছাত্রলীগ সকলের আস্থা অর্জন করতে পারে। আর সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে আস্থা অর্জন করলেই কেবল ছাত্রলীগের নেতা হওয়া যাবে বলে জানান এসময় তিনি।
ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা জয় সেন গুপ্ত’র পরিচালনায় সমাবেশে নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুমেন বড়ুয়া বলেন, শেখ হাসিনার হাত ধরে হাজার হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আজ এমপিও ভূক্ত হয়েছে। লক্ষাধিক শিক্ষকের চাকুরী সরকারীকরণ হয়েছে। ৩৫ কোটি নতুন বই বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে পৌছেছে। নারীদের উচ্চ শিক্ষা সহজলভ্য করা হয়েছে সর্বোপরী শিক্ষাসেবাকে কার্যকর করার উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনার গৃহিত প্রদক্ষেপ সমূহ শিক্ষার্থীদের দোয়ারে পৌছে দিচ্ছে চট্টগ্রামের ছাত্রলীগ পরিবার। ছাত্রবান্ধব এমন ছাত্র রাজনীতি সকল অপশক্তিকে নস্যাৎ করে ছাত্রলীগের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনবে বলে জানান এসময় তিনি।
সমাবেশে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নগর ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক নাদিম উদ্দিন, আমজাদ হোসেন টুটুল, নগর যুবলীগ নেতা এস.এম. সামাদ। একাত্বতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন চকবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ মুছা, সাবেক ছাত্রনেতা শফিকুল ইসলাম শামীম, হাজী মোঃ সেলিম রহমান, যুবলীগ নেতা তারেক সুলতান, মোঃ মহিউদ্দিন। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন আবির, সাইফুদ্দীন মানিক, আহমেদ রেজা চৌধুরী, মুজিবুর রহমান রাসেল, বাবু চৌধুরী, নজরুল ইসলাম, ইমরান খান, সোহেল মোহাম্মদ নীল, মোহাম্মদ আরিফ, তানিম চৌধুরী, এ এইচ ফাহিম প্রমুখ।


আরোও সংবাদ