শাহপরীর দ্বীপ বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে দ্বীপবাসীর মানববন্ধন

প্রকাশ:| শনিবার, ১৪ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপ বেড়িবাঁধ নির্মাণে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি একনেক অনুমোদিত ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি সুষ্ঠু ও টেকসই নির্মাণের লক্ষ্যে সেনাবাহিনী অথবা নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন দ্বীপবাসী।
শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) জুমার নামাজের পর শাহপরীর দ্বীপ তিন রাস্তার মাথা বাজারে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য ও শাহপরীর দ্বীপ সাংগঠনিক ইউনিয়ন সভাপতি সোনা আলীর নেতৃত্বে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে হাজার হাজার নারী,পুরুষ,বিভিন্ন স্কুল-মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী, মসজিদের ইমাম, ব্যবসায়ী সমাজসহ সর্বস্তরের জনতা স্বত‍ঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়।

মানববন্ধনে আওয়ামী লীগ নেতা সোনা আলী সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, আমরা শাহপরীর দ্বীপবাসী বেড়িবাঁধ বিলীন হয়ে যাওয়ার কারণে দীর্ঘ ৫ বছর কষ্ট ভোগের পর প্রধানমন্ত্রী বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেন। প্রকল্পটি দুর্নীতিমুক্ত ও টেকসই বাস্তবায়নের স্বার্থে দুর্নীতিবাজ ঠিকাদারের হাতে না দিয়ে সেনাবাহিনী অথবা নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়ন চাই।

শাহপরীর দ্বীপ রক্ষা ও উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি মাস্টার জাহেদ হোসেন বলেন, বেড়িবাঁধ ভাঙনের ফলে শাহপরীর দ্বীপে প্রায় ২ হাজার একর জমিতে লবণ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়, লবণাক্ততার কারণে কৃষি উৎপাদন ব্যাহত হয়। বেড়িবাঁধ নির্মাণে একনেক ১০৬ কোটি টাকার যে বরাদ্দ দিয়েছে তা সেনাবাহিনী অথবা নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়নের দাবি জানাচ্ছি।

শাহপরীর দ্বীপ রক্ষা ও উন্নয়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এমএ হাশেম বলেন, শাহপরীর দ্বীপ বেড়িবাঁধ ভাঙনে যোগাযোগের প্রধান সড়ক বিলীন হয়ে যাওয়ায় বৃদ্ধ,নারী ও গর্ভবতী নারীদের চিকিৎসা যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তাই একনেক বরাদ্দ প্রকল্পটি দুর্নীতিমুক্ত ও টেকসই বাস্তবায়নের স্বার্থে দুর্নীতিবাজ ঠিকাদারের হাতে না দিয়ে সেনাবাহিনী অথবা নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়ন চাই।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মাস্টার জাহেদ হোসেন, শাহপরীর দ্বীপ রক্ষা ও উন্নয়ন পরিষদ সাধারণ সম্পাদক এমএ হাশেম সিআইপি, সাবেক ইউপি সদস্য মোহাম্মদ ইসমাইল, সাবেক ইউপি সদস্য সনজিদা বেগম,শাহপরীর দ্বীপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কলিম উল্লাহ, বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক ফরিদুল আলম, জসিম উদ্দীন, ডাংগর পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ফয়েজ উল্লাহ, আওয়ামী লীগ নেতা মনির উল্লাহ, জাহেদ হোসেন, ব্যবসায়ী হাফেজ মো. আরমান,মো. হাসান, মো. আলম, টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসেদ, ছাত্রলীগ নেতা মো. ফয়সাল প্রমুখ।

২০১২ সালে শাহপরীর দ্বীপ পশ্চিমের বেড়িবাঁধ বিলীন হয়ে গেলে ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট একনেকের সভায় বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। বর্তমানে ঠিকাদার নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।