শহীদ স্বপন চৌধুরীর স্মরণ সভা

প্রকাশ:| রবিবার, ৪ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ০৮:১৭ অপরাহ্ণ

গত ৩ ডিসেম্বর শহীদস্বপন চৌধুরীর স্মরণ সভা, হৃদয়ে বাংলাদেশ চেতনায় মুক্তিযুদ্ধ এর উদ্যোগে সংগঠনের মোমিন রোডস্থ কার্যালয়ে বিকাল ৪ টায় এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা হারুন রশিদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ডা. বিধান মিত্রের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় বক্তারা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাক সাইটে ও মেধাবী ছাত্রনেতা স্বপন চৌধুরী ছিলেন তৎকালীন কেন্দ্রীয় ছত্রলীগের প্রচার সম্পাদক, ছাত্রলীগের স্বাধীনতাকামী গোপান উনার সার্কেল স্বাধীন বাংলা নিউ ক্লিয়াসের সদস্য এবং বঙ্গবন্ধুর ঘণিষ্ট সহকর্মী ছিলেন। ১৯৭০ সালের ১২ আগস্ট পূর্ব পাকিস্তান ছত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির বর্ধিত সভায় স্বপন চৌধুরী স্বাধীন সমাজ তান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব উপস্থাপন করেন এবং অধিকাংশ সদস্যের সম্মতিক্রমে সেই প্রস্তাব অনুমোদিত হয়। এর পর ১৯৭১ এর অগ্নিছড়া মার্চে মুক্তিযুদ্ধের সূচনায় তিনি চট্টগ্রাম শহরে প্রতিরোধ আন্দোলনের নেতৃত্বে দেন। হাজারী গলি বিনোধা ভবনে মুক্তি সংগ্রামে ছাত্র যুবকদের সর্বপ্রথম সামারিক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেন। এবং ২৮ মার্চ রাইফেল ক্লাবের অস্ত্রগার ভেঙ্গে ট্রেনিং প্রাপ্ত ছাত্র যুবকদের মাঝে অস্ত্র বন্টন করেন। পরে ভারতে গিয়ে বি.এল.এফ মুক্তিযোদ্ধাদের সংঘঠিত ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেন। এবং নিজেও ধেরাদোনে মিলিটারী একাডেমিতে প্রশিক্ষণ নিয়ে চট্টগ্রাম দক্ষিণ কক্সবাজার ও পাবর্ত্য চট্টগ্রাম বি.এল.এফ তথা মুজিব বাহিনীর অধিনায়ক নিযুক্ত হয়ে দেশের অভ্যন্তরে গেরিলা যুদ্ধের নেতৃত্ব দেন এবং ৩ ডিসেম্বর হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ যুদ্ধে শহীদ হন। বক্তারা তাঁর স্মৃতি স্মারক চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন পার্কের নাম শহীদ স্বপন পার্ক ও চট্টগ্রাম শহরে একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক তার নামে নামকরণের দাবি জানিয়ে আলোচনায় অভিমত ব্যক্ত করেন মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক পঙ্কজ দস্তিদার, শরিয়ত উল্লাহ, দিপঙ্কর চৌধুরী কাজল, অধ্যাপক শিপুল কুমার দে, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ, প্রকৌশলী টি.কে. শিকদার, মুক্তিযোদ্ধা বাদল চন্দ্র দাশ, মুক্তিযোদ্ধা সুশীল নাথ, আব্দুর রহমান সিকদার, ডা. বি.রায় চৌধুরী, টিটু শীল, রিংকু ভট্টাচার্য, মৃণাল দাশ, সাধন চৌধুরী, সাংবাদিক রোকন উদ্দিন আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুচ সালাম, মোহাম্মদ আলী, যদু সিংহ, বিদেশ দে, দিলীপ সেন গুপ্ত, পঙ্কজ দাশ, ইন্দ্র কুমার নাথ, ওবাইদুল হক, কেশব আচার্য্য প্রমুখ। আগামী ১৫ ডিসেম্বর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা কদম মোবারক মিলনায়তনে দুপুর ২ টায় থেকে শুরু হবে।