শহীদ তবারক হোসেনের ৩৬তম মৃত্যু বাষিকী পালিত

প্রকাশ:| সোমবার, ২ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ১০:১৭ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজান ঃচট্টগ্রাম সরকারী সিটি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রসংসদের সাবেক এ,জি,এস শহীদ তবারক হোসেন এর ৩৬তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শহীদ তবারক স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে এক স্মৃতিচারণ ও আলোচনা সভা তার নিজ গ্রামে হাটহাজারী দক্ষিণ বাড়ীঘোনায় মৌলানা হামিদুল্লাহ শাহ মাজারের পাশ্বস্থ ময়দানে সংগঠনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক লায়ন আলহাজ্ব দিদারুল আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সহ-সভাপতি মোঃ এরশাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিষ্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী (নওফেল)- প্রধান আলোচক ছিলেন- চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের আইন বিষায়ক সম্পাদক এডভোকেট ইফতেখার সাইমুল। বিশেষ অতিথি ছিলেন- হাটহাজারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন চৌধুরী নোমান, উত্তর মার্দাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মন্জুর হোসেন চৌধুরী মাসুদ, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রণি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী সুজন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য রাজেশ বড়–য়া। সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি মোঃ জাবের কায়সার চৌধুরী, মোঃ মাসুদ, খোরশেদ আলম, মিজান, সাকিব, মনির,অনিক, নিশাদ, রাহাত, মারুফ, ফাহাত, ইফতি, শয়ন, শওকত প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার পর জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে ঘাতক চক্র রাজাকার, আলবদর ও জামাত শিবিরের হত্যার নীল নকশার মাধ্যামে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তির উপর নির্মম নির্যাতন চালায়। তারই ধারাবাহিকতায়- ১৯৮১ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ঐ দিনে প্রকাশ্যে দিবালোকে চট্টগ্রাম কলেজের লেচুতলায় নির্মমভাবে তবারক হোসেনকে হত্যা করেন। যার রক্তের গন্ধ এখনো শুকায়নি। আসুন আমরা সবাই শহীদ তবারকের রাজনৈতিক আর্দশে আর্দশিত হয়ে একটি ডিজিটাল বাংলাদেশ ও বিএনপি জামাত শিবির মুক্ত রাষ্ট্র করার শপথ গ্রহন করি।