লোহাগাড়া প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মেরাজ উদ্দিন ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে আটক

প্রকাশ:| বুধবার, ৫ মার্চ , ২০১৪ সময় ১০:০৬ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মেরাজ উদ্দিনকে ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে আটক করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তারা। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলার পুটিবিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ের দপ্তরি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার আবেদন জানালে মো. জাহেদ নামের এক ব্যক্তির কাছে ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মেরাজ উদ্দিন। তিনি জানান, ঘুষের টাকা না দিলে জাহেদ দপ্তরি হিসেবে নিয়োগ পাবেন না। বিষয়টি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন জাহেদ। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি চট্টগ্রাম বিভাগীয় দুদক কার্যালয়কে অবহিত করে।

এর ভিত্তিতে আজ পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী শিক্ষা অফিসের কার্যালয়ে ওত পেতে থাকেন দুদকের কর্মকর্তারা। সেখানে জাহেদের কাছে দাবি করা টাকা গ্রহণের সময় হাতেনাতে মেরাজ উদ্দিনকে আটক করেন তাঁরা। পরে তাঁর দপ্তর ও বাসায় তল্লাশি চালিয়ে আরও ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।
এ ঘটনায় মেরাজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে দুদক আইনে লোহাগাড়া থানায় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন দুদক চট্টগ্রাম-২-এর উপপরিচালক মোশারফ হোসেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দুদকের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক আবদুল আজিজ ভূঁইয়া প্রথম আলোকে জানান, মেরাজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগের তথ্য ছিল। এসব তথ্যের ভিত্তিতে ফাঁদ পেতে তাঁকে হাতেনাতে আটক করা হয়।
আটক হওয়া শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মেরাজ উদ্দিন জানান, কিছু শিক্ষক মিলে তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছেন।

লোহাগাড়া উপজেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. বশীর উদ্দিন জানান, মেরাজ উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরেই এ এলাকার শিক্ষকদের কাছে নানা অজুহাতে অযথা ঘুষ দাবি ও হয়রানি করে আসছেন।