লোহাগাড়ায় জামায়াতি সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে বার আউলিয়া ডিগ্রি কলেজের জমি দখলের অভিযোগ

প্রকাশ:| বুধবার, ১৬ জুলাই , ২০১৪ সময় ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

প্রতিবাদে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের মানব বন্ধন : চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়ক ব্যারিকেটলোহাগাড়ায় জামায়াতি সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে বার আউলিয়া ডিগ্রি কলেজের জমি দখলের অভিযোগ

এ.কে. আজাদ, লোহাগাড়া :
লোহাগাড়ায় ভুমিদস্যু এক জামায়াতি সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বার আউলিয়া ডিগ্রি কলেজের জমি জবর দখল করার অভিযোগ ওঠেছে। আর এ দখলবাজীর প্রতিবাদ করায় কলেজের দপ্তরী আবদুল মোনাফ, তার দু’পুত্র ও কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্রসহ ৮ জন নিরপরাধ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে তাদের গ্রেফতার করে। এর প্রতিবাদে গতকাল বুধবার সকাল ১১ টায় কলেজ সম্মুখস্থ চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে মানব বন্ধন করেন কলেজের শিক্ষকসহ পাঁচ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী। ওই সময় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে ব্যারিকেট দিয়ে আধ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ করে সড়ক অবরোধ করা হয়। এতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার অভিমুখী শত শত গাড়ী সড়কে আটকা পড়ে। বিক্ষোভ প্রদর্শন ও মানব বন্ধনের সময় কলেজে অধ্যয়নরত পাঁচ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী “কলেজ বাঁচাও, জাতি বাঁচাও, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার কর, করতে হবে” এসব শ্লোগানে শ্লোগানে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক মুখরিত করে তোলে। পরে, খবর পেয়ে লোহাগাড়া থানার ওসি মো. শাহাজাহান পিপিএম ও উপ-পরিদর্শক আবদুল আউয়ালের নেতৃত্বে পুলিশের দু’টি দল ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। মানব বন্ধনে উপস্থিত ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ মো. ফয়জুল্লাহ চৌধুরী, সহকারী অধ্যাপক মোস্তাক আহমদ, প্রভাষক আক্তার উদ্দীন, নুরুল হোছাইন, জালাল উদ্দীন, নজরুল ইসলাম, মো. ফয়সাল, আবদুল মজিদ, মো. আলমগীর, প্রধান হিসাব সহকারী আতিয়ার রহমান ও অফিস সহকারী জসিম উদ্দীন। ছাত্র নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মামুনুর রশিদ মামুন, জিহাদ, আরফাত, মিশকাত, তৌকির, আবদুল্লাহ আল-নোমান, ওয়াহিদুল ইসলাম, ফরহাদ, রমিজ উদ্দীন, সৌরভ দাশ, আরফাত সানি, টিটু, সাইফুল, জোবাইর, আক্তার হোসেন, মানিক, জিহান, কানন, সাজ্জাদ, রায়হান, রিসন, শামীমা আক্তার, ফাহমিদা আক্তার, তাজমিন আক্তার, খুরশিদা আক্তার, রাশেদা বেগম ও লিজা প্রমূখ।
উল্লেখ্য, ভুমিদস্যু জামায়াতি এক সিন্ডিকেট কর্তৃক কলেজের সম্মুখস্থ জমি দখলের প্রতিবাদ করায় কলেজের দপ্তরী আব্দুল মোনাফ, তার দু’পুত্র ও কলেজের অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীসহ ৮ ব্যক্তির বিরুদ্ধে গত ১১ জুলাই লোহাগাড়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়। গত সোমবার রাত সাড়ে ১২ টায় দপ্তরী আবদুল মোনাফসহ তার দু’পুত্রকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।