লাশের মিছিলে নুরুর লাশ যোগ হয়েছে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ , ২০১৭ সময় ০৯:৩৬ অপরাহ্ণ

৩২নং আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে-ডা. শাহাদাত হোসেন

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, লাশের মিছিলে আরও নুরুর লাশ যোগ হয়েছে। এই সরকার ফ্যাসিস্ট কায়দায় দেশের মানুষের উপর জুলুম নির্যাতন করছে। আজ কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক ও উত্তর জেলা ছাত্রদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক নুরুল আলম নুরুর একটি অপরাধ ছিল সে বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত। আজকে নুরুর মত শত শত বিএনপি নেতাকর্মীদের হত্যা গুম করছে এই ফ্যাসিবাদী সরকার তারা একটার পর একটা বিএনপি যুবদল, ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের হত্যার মাধ্যমে ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করার পায়তাঁরা করছে। এই সরকার হত্যার যে রাজনীতি শুরু করেছে তা দেশের জন্য শুভ নয়। নুরুর মত আর কত লাশের প্রয়োজন হলে এই সরকারের রক্ত খেলা শেষ হবে। আর কত মায়ের বুক খালী করার ইচ্ছা আছে এই সরকারের দেশের মানুষ জানতে চাই। নুরু হত্যা শেখ মুজিবুর রহমানের রক্ষি বাহিনীর চেয়ে ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞ হয়েছে। ডা. শাহাদাত হোসেন আরও বলেন, আজ কুমিল্লা কর্পোরেশন নির্বাচনে যেভাবে ভোট ডাকাতি হয়েছে তাতে বুঝা যায় এই সরকারের নির্বাচন কমিশন এর অধীনে কোন সুষ্ঠ নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এই নির্বাচন কমিশনারও রকিব উদ্দিন মার্কা মেরুদন্ডহীন একটি নির্বাচন কমিশনার। ডা. শাহাদাত আরও বলেন, আমাদের জাতীয় সমস্যা আমাদেরকে মোকাবেলা করতে হবে। বিএনপি সরকারের আমলে সিলেটের সূর্য্য দীঘল বাড়ি থেকে জঙ্গি প্রধান শেখ আব্দুর রহমান সহ জঙ্গি শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় এনে ফাঁসি দিয়েছিল। তাই জঙ্গি নিমূল করতে হলে জাতীয় ঐক্যের ভিত্তিতে করতে হবে। ডা. শাহাদত আরও বলেন, ভারতের সাথে দীর্ঘ দিনের অমীমাংসিত তিস্তা পানি চুক্তি হলেই দেশে বাসী মেনে নিবে। কোন প্রতিরক্ষা বা গোলামী চুক্তি এদেশের জনগণ মেনে নিবে না। তিনি অদ্য ৩০ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকেলে আন্দরকিল্লাস্থ কদম মোবারক প্রিয়া কমিউনিটি সেন্টারে ৩২নং আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড বিএনপি’র দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেতা নুরুল আলম নুরুকে হত্যার মধ্যদিয়ে সরকারের খুনী চেহেরা আবার উম্মোচিত হল। আবারও এক পেশে প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে রাষ্ট্র ক্ষমতা কুক্ষিগত করার লক্ষ্যে সারা দেশের বিএনপির দক্ষ সংগঠককে হত্যা করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল কেন্দ্রীয় ছত্রদল নেতা নুরুকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি বলেন, আন্দোলন কিংবা নির্বাচনে শক্তিশালী সংগঠনের বিকল্প নেই। দলীয় কর্মসূচিতে জনগণকে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দলীয় কর্মসূচিতে সাধারণ জনগণের ব্যাপক হারে অংশগ্রহণ নিশ্চিতে দক্ষ কর্মী বাহিনী তৈরী করতে হবে। দেশ ও জাতির এই চরম ক্রান্তি লগ্নে সকল প্রকাশ ভেদাভেদ ভুলে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দলকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, জঙ্গিবাদ দমনে ব্যর্থ হয়ে সরকার বিএনপি নেতাকর্মীদের হত্যার পথ বেছে নিয়েছে। উত্তর জেলা ছাত্রদল নেতা নুরুল আলমকে হত্যা করে আওয়ামী লীগ সরকার বিএনপিকে ধ্বংসের ব্যর্থ চেষ্ঠা করছেন। এক নুরুর রক্ত থেকে লক্ষ নুরু জন্ম নিবে। নুরু হত্যার শোককে শক্তিতে পরিণত করে বিএনপি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
৩২নং আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড বিএনপির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আলাউদ্দিন আলী নুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মোহাম্মদ আলী, হারুন জামান, ইস্কান্দার মির্জা, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, কামরুল ইসলাম, , বেলায়েত হোসেন বুলু, ফাতেমা বাদশা, কাউন্সিল মনোয়ারা বেগম মনি আব্দুল মান্নান, শিহাব উদ্দিন মোবিন, এইচ.এম. রাশেদ খান, জেলি চৌধুরী, মঞ্জুর রহমান চৌধুরী, আকতার খান,আলহাজ্ব জাকির হোসেন, তৌহিদুস সালাম নিশাদ, সাইফুর রহমান শপথ, এম এ হালিম বাবলু, সাব্বির আহমদ, ইয়াকুব চৌধুরী নাজিম, নাজমুল হোসেন ফিরোজ, এস,এম,মফিজুল্লাহ, জাহেদুল্লাহ রাশেদ,নূর করিম, মোঃ গফুর, মোঃ শাহআলম, মোঃ ফরিদ, মোঃ আলাউদ্দিন, মোঃ আনিস, মোঃ সফি, মিতুন দাশ, আব্দুল কাদের, মইনউদ্দিন খান রাজিব, মোঃ কফিল, মোঃ হানিফ প্রমুখ। সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন আলাউদ্দিন আলী নূরকে সভাপতি এবং সৈয়দ আবুল বশর কে সাধারণ সম্পাদক, আবুল কালাম আজাদ কে সিঃ সহ সভাপতি, ইউসুফ সিক্দার,মোঃ হারুণ সওদাগর, জামাল উদ্দিন কে সহ সভাপতি,উসমান গনি কে সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক, হাবিবুর রহমান কে সাংগঠনিক সম্পাদক, জসিম উদ্দিন রানা কে অর্থ সম্পাদক করে ৩২ নং আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড বি,এন,পির কমিটি ঘোষণা করেন।


আরোও সংবাদ