লতিফ সিদ্দিকীর অপসারণে প্রজ্ঞাপন প্রস্তুত

প্রকাশ:| শনিবার, ১১ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীকে অপসারণে প্রজ্ঞাপন প্রস্তুত করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা বলেছেন, রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আবদুল হামিদ স্বাক্ষর করলেই সেটি (প্রজ্ঞাপন) কার্যকর হবে।

আজ শনিবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এদিকে হজরত মুহাম্মদ (সা.), হজ, তাবলিগ জামাত ও প্রধানমন্ত্রী পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রিসভা থেকে অব্যাহতি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয় আগেই।

গত ২৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি হোটেলে নিউইয়র্কে বসবাসরত টাঙ্গাইলবাসীর সঙ্গে মতবিনিময় সময় লতিফ সিদ্দিকী বলেন, আব্দুল্লাহর পুত্র মোহাম্মদ চিন্তা করলো এ জাজিরাতুল আরবের লোকেরা কীভাবে চলবে? তারাতো ছিল ডাকাত। তখন সে একটা ব্যবস্থা করলো যে আমার অনুসারীরা প্রতিবছর একবার একসঙ্গে মিলিত হবে। এর মধ্য দিয়ে একটা আয়-ইনকামের ব্যবস্থা হবে।

তিনি বলেন, আমি হজ আর তাবলিগ জামাতের ঘোরতর বিরোধী, জামায়াতে ইসলামীরও বিরোধী, তবে তার চেয়েও বেশি হজ ও তাবলিগ জামাতের।

হজ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের এ প্রবীণ নেতা বলেন, হজের জন্য ২০ লাখ লোক সৌদি আরবে গিয়েছে। এদের কোনো কাম নাই। এদের কোনো প্রডাকশন নাই। শুধু রিডাকশন দিচ্ছে। শুধু খাচ্ছে আর দেশের টাকা দিয়ে আসছে।

এ সময় তাবলীগ জামাতের সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, তাবলিগ জামায়াত প্রতিবছর ২০ লাখ লোকের জমায়েত করে। নিজেদেরতো কোনো কাজ নেই। সারা দেশের গাড়িঘোড়া তারা বন্ধ করে দেয়।

প্রধানমন্ত্রী পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়েও সমালোচনাও করেন মন্ত্রী। এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কথায় কথায় আপনারা জয়কে টানেন কেন। জয় ভাই’ কে? জয় বাংলাদেশ সরকারের কেউ নয়। তিনি কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ারও কেউ নন।


আরোও সংবাদ