লতিফ সিদ্দিকীকে মুক্তি দিলে লাগার আন্দোলন

প্রকাশ:| বুধবার, ২৭ মে , ২০১৫ সময় ১১:৩৩ অপরাহ্ণ

হজ, মহানবী ও তাবলীগ জামাত সম্পর্কে জঘন্যতম কটূক্তিকারী আত্মস্বীকৃত ধর্মদ্রোহী মুরতাদ লতিফ সিদ্দিকীকে মুক্তি দেয়া হলে সারা দেশে লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচি দেয়ার হুমকি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

বুধবার এক যুক্ত বিবৃতিতে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতারা এ হুমকি দেন।

তারা বলেন, আমরা সরকারকে স্পষ্টভাবে বলতে চাই, জাতীয় সংসদের আসন্ন অধিবেশনে ধর্ম অবমাননাকারী নাস্তিক-মুরতাদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান পাস করুন। লতিফ সিদ্দিকীসহ কোনও নাস্তিক মুরতাদকে যদি কারাগার থেকে মুক্তি দেয়া হয়; ৯২ শতাংশ মোসলমানের জাতীয় সংসদে যদি আবারও লতিফ সিদ্দিকে দেখা যায় তাহলে সারাদেশের তাওহিদি জনতা আবারও নাস্তিক-মুরতাদ বিরোধী আন্দোলন গড়ে তুলবে। একই সঙ্গে লতিফ সিদ্দিকীকে প্রকাশ্য রাজপথে প্রতিহত করা হবে।

এমন প্রেক্ষাপটে উদ্ভূত পরিস্থিতির দায় সম্পূর্ণভাবে সরকার ও প্রশাসনের ওপর বর্তাবে বলেও হুঁশিয়ারি করে দেন তারা।

তারা আরো বলেন, সরকার যদি লতিফ সিদ্দিকী মুক্তি দেয় এবং ইসলাম অবমাননাকারী নাস্তিক-মুরতাদদের অবিলম্বে শাস্তির আওতায় আনতে ব্যর্থ হলে হেফাজতে ইসলাম লাগাতার কর্মসূচি ঘোষণা করতে বাধ্য হবে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ধর্ম অবমাননার সাতটি মামলায় জামিন পেয়েছেন লতিফ সিদ্দিকী। একই সঙ্গে মামলাগুলো স্থগিতও করেছেন হাইকোর্ট।

বিবৃতিদারা হলেন, হেফাজতে ইসলামের সিনিয়র নায়েবে আমির আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, নায়েবে আমীর আল্লামা শামসুল আলম, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, আল্লামা আবদুল মালেক হালিম, আল্লামা মুফতি মুজাফফর আহমদ, মাওলানা তাফাজ্জল হক হবিগঞ্জী, মুফতি আহমদুল্লাহ, মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী।