রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রহসন বন্ধ করুন

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ০৬:০২ অপরাহ্ণ

আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে আজ ১৩ অক্টোবর’১৭ শুক্রবার বিকালে কক্সবাজার উখিয়া থ্যাংকখালী তানজিমারখোলা-৬ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মিয়ানমার সরকারের নিপীড়ন ভয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা অসহায় রোহিঙ্গা মুসলমানদের মাঝে ৪র্থ দফা ত্রাণ বিতরণ করা হয়। ত্রাণ বিতরণকালে আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত সমন্বয় কমিটির প্রধান সমন্বয়ক আল্লামা এম এ মতিন বলেন, নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলমানদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় পুরোপুরিভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ রোহিঙ্গা ইস্যুতে বার বার বৈঠকের নামে প্রহসনে লিপ্ত রয়েছে। নিরাপত্তা পরিষদের এ প্রহসন বন্ধ করে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার পদক্ষেপ নিতে হবে। রাখাইন (আরাকান) রাজ্যে শান্তিরক্ষীবাহিনী প্রেরণ করে ‘সেইফ জোন’ ঘোষনা দিয়ে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে। এ লক্ষ্য ওআইসি, আরবলীগ, আশিয়ান, সার্কসহ বিশ্বের মানবাধিকার সংস্থা সমূহের মাধ্যমে চাপ প্রয়োগ করে মিয়ানমার সু চি সরকারকে বাধ্য করতে হবে। তিনি আরো বলেন, চীন-রাশিয়া একচোখা নীতি পরিহারে সরকারকে কূটনৈতিক তৎপরতা আরো বৃদ্ধির করতে হবে। মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার আশ্বাসের মধ্যেও এখনও রাখাইন রাজ্যে হত্যাযজ্ঞ চালানো হচ্ছে এবং বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে আসতে বাধ্য করা হচ্ছে। মিয়ানমারের উদ্দেশ্যমূলক কূটকৌশলে সরকারের কঠোরতা অবলম্বন প্রয়োজন। ত্রাণ বিতরণ কালে আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত সমন্বয় কমিটির প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা সরোয়ার আকবর, মাওলানা সালাউদ্দীন মো: তারেক, অধ্যক্ষ সালাউদ্দীন খালেদ, মুহাম্মদ নঈম উল ইসলাম, মাষ্টার মুহাম্মদ আবুল হোসাইন, মাস্টার মুহাম্মদ জাফর আহমদ মজুমদার, এইচ এম শহীদুল্লাহ, ইশতিয়াক রেযা, নিজামুল করিম সুজন, মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম, এস এম নিয়ামত উল্লাহ, মুহাম্মদ ইছমাঈল হোসাইন, মাছুমুর রশিদ কাদেরী, মুহাম্মদ মহসিন, মুহাম্মদ মামুনুর রশিদ, রফিকুল ইসলাম,ফরহাদ হোসেন প্রমুখ। আহলে সুন্নাতের ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল- ১ হাজার পিচ তাবু, ৩ হাজার পিচ মশারি, ৩ হাজার পিচ শাড়ী, বিপুল ঔষুধ ও খাদ্য সামগ্রীসহ প্রায় ৪০ লক্ষ টাকার নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। উল্লেখ্য আহলে সুন্নাত কেন্দ্রিয় সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা আশ্রয় ক্যাম্পে ১ম দফা, ১৬ সেপ্টেম্বর চমেক হাসপাতালে ২য় দফা ও ঢাকা মহানগর সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে ১৯ সেপ্টেম্বর উখিয়া ৩য় দফা ত্রাণ, নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।