রাসেলকে হত্যা করে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছতে চেয়েছিল

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২১ অক্টোবর , ২০১৬ সময় ১০:২৮ অপরাহ্ণ

বঙ্গবন্ধু শিল্পী গোষ্ঠির উদ্যোগে শেখ রাসেল’র জন্মদিনের আলোচনা সভায় জেলা প্রশাসক

%e0%a6%b0%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a6%b2%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%b9%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be-%e0%a6%95%e0%a6%b0%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%99%e0%a7%8d%e0%a6%97%e0%a6%ac%e0%a6%a8
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক সামসুল আরেফিন বলেছেন, শেখ রাসেলকে হত্যার মধ্যদিয়ে ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর প্রজন্মকে ধ্বংস করতে চেয়েছিল। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে পরাজিত শক্তিরা আন্তর্জাতিক ও দেশীয় চক্রান্তের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুসহ সপরিবারকে হত্যা করে পাকিস্তানী ভাবধারায় বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠিত করার চক্রান্তে চেষ্ঠা করেছিল। বঙ্গবন্ধুর রক্ত নিচ্ছিন্ন করতে শেখ রাসেলকে হত্যা করেছে। তখন রাসেলের বয়স ছিল ১১ বছর। একটি শিশুর কি অপরাধ ছিল যে তাকে হত্যা করল। শেখ রাসেলকে ঘাতক খুনি চক্র যখন হত্যা করতে যায়, তখন রাসেল পানি চেয়েছিল, মায়ের কাছে যেতে চেয়েছিল কিন্তু ঘাতকরা তাকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দার ভাষা আমাদের নেই। রাসেলের হত্যার প্রতিশোধ তখনি বাস্তবায়িত হবে বঙ্গবন্ধুর ক্ষুধা দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়ার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন তা বাস্তবায়িত হলে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ যে উন্নয়নে মহাসড়কের দিকে ধাবিত হচ্ছে তা বাস্তবায়িত হলে স্বাধীনতা বিরোধীদের সকল চক্রান্ত বিফলে যাবে। শেখ রাসেলের জন্মদিনে আমাদেরকে প্রতিজ্ঞা করতে হবে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে একটি সুখী সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ বিনির্মাণে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
আজ ২১ অক্টোবর রোজ শুক্রবার বিকাল ৫ ঘটিকায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু শিল্পীগোষ্ঠীর উদ্যোগে শেখ রাসেলের ৫২তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শিল্পগোষ্ঠীর আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
উদ্বোধকের ভাষনে আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক বলেছেন শেখ রাসেলকে হত্যা করে খুনিরা তাদের বিবেকহীন নিষ্ঠুরতার পরিচয় দিয়েছে। এই হত্যা ছিল গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ তাই বাঙালি জাতি এই মৃত্যুকে মেনে নিতে পারেনি। প্রধান বক্তার বক্তব্যে সমাজসেবক টিকে চক্রবর্ত্তী বলেন, বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় জননেত্রী শেখ হাসিনার এ উন্নয়নের ধারাকে গতিশীল করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।
সংগঠনের সহ-সভাপতি লায়ন জাফরুল উল্লাহ’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ লিপটনের সঞ্চালনায় এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি হাসিনা জাফর, সহ-সভাপতি আবৃতি শিল্পী রাশেদ হাসান, সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রণব রাজ বড়–য়া, আর.কে. রুবেল, কালিম শেখ, সাংগঠনিক এনাম আহমেদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শরীফা ইয়াছমিন, শান্তা পাল, রেখা বড়–য়া, ড. বাবলা দাশ, সাজু, কামাল হোসেন, মোঃ জাফর ইকবাল ভূইয়া, সাংবাদিক সমীরণ পাল প্রমুখ।


আরোও সংবাদ