রাষ্ট্রপতিকে সর্বশেষ পরিস্থিতি জানালেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:| রবিবার, ৮ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ০৯:৫৭ অপরাহ্ণ

রাষ্ট্রপতি-PMttরাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদকে সার্বিক পরিস্থিতি জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে বৈঠকে সুনির্দিষ্টভাবে কোন কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানা যায়নি।

রোববার রাতে বৈঠক শেষে এ কথা জানান রাষ্ট্রপতির প্রেসসচিব ইহসানুল করিম।

তিনি জানান, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

সার্বিক পরিস্থিতি বলতে কী বোঝানো হচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সেটা আমার এখতিয়ারের বাইরে। আপনারা নিজেরা বুঝে নেন।’ আগামীকাল সোমবার ম্যান্ডেলার শেষকৃত্যে অংশ নিতে রাষ্ট্রপতি দক্ষিণ আফ্রিকা যাবেন বলে জানান তিনি।

এর আগে রোববার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে শেখ হাসিনা বঙ্গভবনে প্রবেশ করেন। তার সঙ্গে ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকারমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। নির্বাচন নিয়ে চলমান সঙ্কটের মধ্যে সমঝোতার লক্ষ্যে জাতিসংঘের বিশেষ দূত যখন ঢাকা সফর করছেন তখন বঙ্গভবনে গেলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রায় সোয়া এক ঘণ্টা তাদের বৈঠক হয়।

এ পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যাওয়ার কোনো বিশেষ উদ্দেশ্য আছে কি না এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতারা কিছু বলছেন না। তারা বলছেন, এটি রুটিন ওয়ার্ক। তবে জাতিসংঘের দূত অস্কার ফার্নান্দেজের সফর, জাতীয় পার্টির মন্ত্রীদের পদত্যাগ, নেলসন ম্যান্ডেলার শেষকৃত্যে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতির দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়া এসব বিষয়ে আলোচনা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন নির্বাচনকালীন সরকার গঠনের বিষয়ে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন তিনি। পরদিন নির্বাচনকালীন সরকারে শপথ নেন নতুন চার মন্ত্রী ও দুই প্রতিমন্ত্রী। এর মধ্যে জাপার তিন মন্ত্রী ও এক প্রতিমন্ত্রী ছিলেন।

নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবিতে আন্দোলন করছে বিএনপি। এর মধ্যে নিজস্ব ফরমুলায় নির্বাচনকালীন মন্ত্রিসভা গঠন করেন শেখ হাসিনা।ফলে আন্দোলন আরো সহিংস রূপ নেয়। গত তিন সপ্তাহে অর্ধশতাধিক লোকের মৃত্যু হয়েছে। ব্যবসা বাণিজ্য কার্যত অচল হয়ে পড়ায় সমঝোতার দাবিতে রাস্তায় নেমেছেন ব্যবসায়ীরাও। তারপরও আওয়ামী লীগ একতরফা নির্বাচন করার সিদ্ধান্তে অটল।

কিন্তু হঠাৎ করে নির্বাচন বর্জন ও মন্ত্রিসভা থেকে এরশাদের সরে যাওয়ার ঘোষণায় পরিস্থিতি আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

এই রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসনের লক্ষ্য নিয়ে গত শুক্রবার ঢাকা এসেছেন জাতিসংঘ সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ তারানকো।

গতকাল শনিবার তিনি আওয়ামী লীগ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন।

রোববার সকালে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ এরপর প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে বৈঠক করেন তারানকো। পরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়ে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা গওহর রিজভীর সঙ্গেও এক অনির্ধারিত বৈঠক করেন জাতিসংঘ দূত। পরে সুশীল সমাজ এবং নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের সঙ্গেও তার বৈঠক হয়।


আরোও সংবাদ