রামুতে মাদক ও প্রতারণার পৃথক অভিযোগে ২জনকে সাজা

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৮ জুলাই , ২০১৭ সময় ১০:৪০ অপরাহ্ণ

খালেদ হোসেন টাপু, রামু :
কক্সবাজার রামুতে মাদক ও প্রতারণার দায়ে পৃথক ২জনকে সাজা দিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহজাহান আলী। শুক্রবার প্রতারণার দায়ে জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের নন্দাখালী উত্তর পাড়া মৃত মিয়া হোছনের পুত্র প্রতারক জাফর আলম (৩৭) কে ৩ মাসের সাজা দেন ভ্রাম্যমান আদালত। শুক্রবার সকালে প্রতারক জাফর আলমকে কাউয়ারখোপ উখিয়ারঘোনা এলাকায় টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগে তাকে আটক করে রাখে স্থানীয় জনগন। পরে খবর পেয়ে কাউয়ারখোপ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, ইউপি সদস্য হাবিব উল্লাহ ও ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি তাকের আহমদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শাহাজাহান আলীর কাছে প্রতারক জাফর আলমকে নিয়ে আসলে প্রতরণার অভিযোগের সত্যতা পেলে তাকে ৩ মাসের সাজা দেন। বৃহস্পতিবার রাজারকুল সিকদার পাড়া এলাকার ইমাম শরীফের পুত্র মদ্যপায়ী রফিকুল আলম (৩৫) কে ৬ মাসের সাজা প্রদান করেন ভ্রম্যমান আদালত। মাদকাসক্ত রফিকুল আলম প্রতিদিন মাদক দ্রব্য সেবন করে স্ত্রী সন্তানদেরকে শারীরক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছে। মাদকাসক্ত রফিকুল আলমের স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে এ সাজা প্রদান করা হয়।
এদিকে রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শাহাজান আলী জানান, জনৈক জাফর আলম নিজেকে কখনো প্রশাসনিক কর্মকর্তা, ক্ষমতাসীন দলের পোষ্টধারী নেতা পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন এলাকার মানুষদেরকে সরকারী ভাতা, টিউবওয়েল ইত্যাদিসহ পায়ে দেওয়ার নাম করে প্রতারিত করে আসছে। এ প্রতারণার অভিযোগে তাকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়। এছাড়া মাদকাসক্ত রফিকুল আলম দীর্ঘদিন ধরে মাদক সেবন, সংরক্ষনের সাথে জড়িত থেকে পরিবারের লোকজনকে মারধর করে অশান্তি সৃষ্টি করে আসছে। তার স্ত্রীর আবেদনের প্রেক্ষিতে তাকে ৬ মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয়।


আরোও সংবাদ