রাঙ্গুনিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৬ ডাকাতকে ধরে পুলিশে দিযেছে জনতা

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৫:১৮ অপরাহ্ণ

নিউজচিটাগাং২৪.কম>
রাঙ্গুনিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ধরা পড়া ডাকাতদলের সদস্যরা রাউজানের বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত।রাঙ্গুনিয়া dakatউপজেলার রাজা নগর ইউনিয়নের বড়ং ছড়ি মসজিদ্যা টিলা এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার সময়ে জনতা ডাকাতদলকে ধাওয়া করে জনতার ধাওয়ার মুখে ডাকাতদলের সদস্যরা পালিয়ে যাওয়ার সময়ে জনতা ৬ ডাকাতকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে । জনতার ধাওয়ার মুখে আরো ৫ ডাকাত পালিয়ে যায় । আটক ৬ ডাকাতের মধ্যে রাউজানের সুলতান পুর রাউজান থানা রোডের পার্শ্বের বাসিন্দ্বা আমান উল্ল্যাহর পুত্র তারেক (২৫), কদলপুর সাবেক চেয়ারম্যান ইদিসের বাড়ীর আবদুর রাজ্জাকের পুত্র মহিউদ্দিন (৩০), একই এলাকার সৈয়দুল হকের পুত্র নুরুল আলম (৩০) ডাকাতদলের সদস্যদের মধ্যে তিন ডাকাত রাউজানের অপর এক ডাকাত রাঙ্গুনিয়া উপজেলার জঙ্গল বগাবিলি এলাকার ফখর উদ্দিনের পুত্র বেলাল সহ ধরা পড়া ডাকাতদলের সদস্যরা রাউজান থানা পুর্ব পার্শ্বে রাউজান থানা রোড ও খাসকালীকুল এলাকায় আস্তানা গড়ে তোলে । ডাকাতদলের সদস্যরা পাহাড়ী চোলাই মদের ব্যবসা, গরু চুরি, টিওবওয়েলের মাথা চুরির ঘটনা সংগঠিত করে আসছিলো রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় । ডাকাত বেলালকে কয়েকবার রাউজান থানা পুলিশ আটক করলে ও পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় । মাদক ব্যবসায়ী আজিমের সাথে রাউজান উপজেলা সদরে প্রকাশ্যে মাদক পাচার করতো ডাকাতদলের সদস্যরা । ধরা পড়া ডাকাতদলের সদস্যরা রাউজান উপজেলা সদরের থানা রোড ও খাসখালী কুল এলাকায় সব সময় তাদের আরো সহযোগীদের সাথে দেখা যেতো বলে নিউজচিটাগাং২৪.কমকে এলাকার লোকজন জানিয়েছেন । রাউজান উপজেলা সদরের খাসকালী কুল আবুল কোম্পানির টেক এলাকায় ডাকাত তারেক, বেলাল, দৌলত, হেলাল সহ অজ্ঞাত নামা ব্যক্তিরা প্রতিনিয়ত চায়ের দোকানে রাস্তার পার্শ্বে হেলাল ও তারেকের বাসায় গভীর রাত পর্যন্ত আলাপ আলোচনা করতো বলে এলাকার লোকজন জানান । রাঙ্গুনিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ডাকাত তারেক, ও বেলাল, মহিউদ্দিন, নুরুল আলম, ধরা পড়ার ঘটনার পর থেকে পুর্বে যে সব ডাকাত এলাকায় ঘুরে বেড়াতো তারা ঘটনার পরদিন থেকেই এলাকায় দেখা যাচ্ছেনা বলে এলাকার লোকজন জানান । রাঙ্গুনিয়ায় ধরা পড়া রাউজানের তিন ডাকাত তারেক, মহিউদ্দিন, নুরুল আলম এর বিরুদ্বে রাউজান থানায় কোন মামলা রয়েছে কিনা রাউজান থানার এস আই আবদুল আউয়ালের কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজচিটাগাং২৪.কমকে জানান তাদেও বিরুদ্বে রাউজান থানায় কোন মামলা পাওয়া যায়নি ।


আরোও সংবাদ