রাউজান ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের কাজ শুরু

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ জুলাই , ২০১৭ সময় ০৯:৫৩ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজান ঃ দুঃসময়ের ছাত্রলীগের কমিটির বিদায় নতুন রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের কাজ শুরু । রাউজান উপহেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয় গত ২০০২ সালে । ঐ সময়ে চারদলীয় জোট সরকারের শাসন আমলে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির সভাপতি পদে আসিন হয় ছাত্রলীগ নেতা জমির উদ্দিন পারভেজ, সাধারন সম্পাদক পদে আসিন হয় জসিম উদ্দিন । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ ও সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির নেতা কর্মীরা দলের দুঃসময়ে আন্দোলন সংগ্রাম করে রাজপথে । এই সময়ে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা হামলা মামলার শিকার হয় । ৯২ সালে রাউজান কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ এনডিপির লালিত সন্ত্রাসীর গুলিতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজকে গুলি করে রাউজানের চারাবটতল এলাকায় । এ সময়ে ছাত্রলীগ নেতা জমির উদ্দিন পারভেজ মারাত্বকভাবে আহত হয় । পরবর্তী ২০০২ সালে তাকে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পদে দায়িত্ব প্রদান করেন ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ ২০০৪ সালে নিহত শীর্ষ সন্ত্রাসী জানে আলম ও তার সহযোগীরা রাউজান সুরেশ বিদ্যায়তন এলাকায় গুলি করে মারাত্বক ভাবে আহত করে । ২০০৪ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ রাউজান পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয় জনগনের ভোটে । এর পর আরো দুই বার রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয় । বর্তমানে রাউজান পৌরসভার ২য় প্যানেল মেয়র হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজকে চারদলীয় জোট সরকারের শাসন আমলে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করা হয় । এসব মামলার তদন্তের পর পুলিশ মামলার ফাইনাল রির্পোট দেয় । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জঙ্গল রাউজান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি হিসাবে দেশের শ্রেষ্ট সভাপতি হিসাবে জাতীয় পুরস্কার লাভ করেন । রাউজান সুরেশ বিদ্যায়তনের পরিটালনা কমিটির সভাপতি হিসাবে দেশের মধ্যে বৃক্ষরোপনে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ ২য় বার জাতীয় পুরস্কার লাভ করেন । দীর্ঘ ১৬ বছর বয়সের রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির নেতারা দলের দুঃসময়ে দলের সাংগঠনিক কর্মকান্ড চালিয়ে যায় । দীর্ঘ ১৬ বৎসরের রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির নেতারা ছাত্রলীগের নেতৃত্ব থেকে বিদায় নিয়ে নতুন ভাবে ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির নেতৃত্বে আসিন হওয়ার জন্য একাধিক ছাত্রলীগ নেতারা সক্রিয় হয়ে উঠেছে । ছাত্রলীগ নেতারা উপজেলা ছাত্রলীগের পদে আসিন হওয়ার জন্য লবিং চালিয়ে যাচ্ছে । পদ প্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতারা প্রতিদিন দল বেধেঁ রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যলয়ে আসায় দলীয় কার্যলয় ছাত্রলীগ নেতা কর্মীদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠেছে । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পদে আসিন হতে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন ছাত্রলীগ নেতা ইমরান হোসেন ইমু, অনুপ চক্রবর্তী, মঈন উদ্দিন মোস্তাফা, দিপলু দে, জিল্লুর রহমান মাসুদ, সাধারন সম্পাদক পদে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন নজরুল ইসলাম, আশিফ, কে, এম শাওন, রাব্বি, কুতুব উদ্দিন, মাসুদ, সাইফুল ইসলাম । নতুন কমিটি গঠন উপলক্ষে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ বলেন, ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দিতে গিয়ে দুই দপে আমাকে গুলি করে হত্যার প্রচেষ্টা করা হয়েছে । হামলা মামলা দিয়ে হয়রানী করা হয়েছে । দলের দুঃসময়ে মামলা ও হামলা করা সত্বে ও আন্দেলন সংগ্রাম থেকে বিরত রাখতে পারেনি । রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে । আগামী ১০ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের সর্মথন নিয়ে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের শক্তিশালী কমিটি গঠন করা হবে । বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক নির্বাহী সদস্য ও রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা বলেন সাংসদ এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীর পরামর্শে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া চলছে । ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের সর্মথন নিয়ে রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টি করা হবে ।
এলাকার লোকজন আটক করে তাকে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে ।