রাউজানে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত যুবলীগ নেতা রাজু

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| সোমবার, ১৩ আগস্ট , ২০১৮ সময় ১০:২৮ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজান ঃ রাউজানের হলদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হাসান মুরাদ রাজু (৩০) কে সন্ত্রাসীরা হত্যার উদ্যোশে কুপিয়ে মারাত্বকভাবে আহত করে । ১৩ আগষ্ট সোমবার বিকাল সাড়ে তিনটার সময়ে হলদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হাসান মুরাদ রাজু রাউজান উপজেলা সদর থেকে মোটর সাইকেল নিয়ে হলদিয়া আমির হাট যাওয়ার পথে র্উাজানের পশ্চিম ডাবুয়া সেন বাড়ী রাস্তার মাথায় পৌছলে,পুর্ব থেকে ্ওৎ পেতে থাকা একদল সন্ত্রাসী তার মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে । সন্ত্রাসীরা এসময়ে যুবলীগ নেতা রাজুকে গুলি করে হত্যার প্রচেষ্টা করে । সন্ত্রাসীদের হাতে থাকা অস্ত্র থেকে ফায়ার না হয়নি । সন্ত্রাসীরা তাদের হাতে থাকা ধারালো কিরিচ দিয়ে যুবলীগ নেতা রাজুকে কুপিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করে । এসময়ে এলাকার লোকজন দৌড়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায় । এলাকার লোকজন আহত যুবলীগ নেতা রাজুকে উদ্বার করে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। পরে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে আহত যুবলীগ নেতা রাজুকে রাউজানের গহিরা জেকে মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যায় । গহিরা জেকে মোমেরিয়ায়ল হাসপাতালের চিকিৎসক আহত যুবলীগ নেতা রাজুকে চিকিৎসা করার পর গতকাল সোমবার বিকাল সাড়ে পাচঁটার সময়ে তার বাড়ী রাউজানের হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর সর্তা নিয়ে যায় । আহত যুবলীগ নেতার বাম হাতে ও বাম পায়ে ও ঘাড়ে জখমের চিহ্ন দেখা যায় । আহত যুবলীগ নেতা রাজু বলেন, হলদিয়া ইউনিয়নে ইয়াবা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সদস্য মহিউদ্দিন, সুমন, জাহাঙ্গীর সহ সন্ত্রাসীরা অতকির্ত ভাবে আমাকে হত্যার উদ্যোশে হামলা করে । হামলাকারী এয়াসিন নগরের সুমনকে ইয়াবা সহ রাউজান থানা পুলিশ গ্রেফতার কারে কারাগারে প্রেরণ করে । হলদিয়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সদস্যদের অপকর্মের বিরুদ্বে প্রতিবাদ করায় তারা আমার উপর হামলা করে । রাউজানের হলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্বা শফিকুল ইসলাম বলেন, হলদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হাসান মুরাদ রাজুকে দেড় লাখ টাকা দিয়ে আগামী ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসের দিনে মেজবানের জন্য রাউজান উপজেলা সদরে মুরগী ক্রয় করতে মুরগীর দোকানে অগ্রিম টাকা দিয়ে শোক দিবসের দিনে মুরগী পাওয়া নিশ্চিত করতে পাঠিয়েছিলাম। রাউজান উপজেলা সদর থেকে ফেরার পথে তাকে ইয়াবা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সদস্যরা হামলা করে । এ ব্যাপারে রাউজান থানায় হামলাকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্বে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে বলে চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম জানান । যুবলীগ নেতা রাজুর উপর হামালার বিষয়ে রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুল বলেন,হামলাকারী যে হউক না কেন তাদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি প্রদানের জন্য পুলিশের হস্তক্ষেপ কামনা করেন । রাউজান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রাউজান পৌরসভার ২য় প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ বলেন, যুবলীগ নেতা রাজুর উপর হামলাকারীদের গ্রেফতার করে শাস্তির আওতায় আনতে হবে । যুবলীগ নেতা রাজুর উপর হামলার ঘটনা সম্পর্কে রাউজান থানার ডিউটি আফিসার দেলোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে, ডিউটি অফিসার দোলোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন । আহত যুবলীগ নেতা রাজুর স্বজনেরা থানায় মামলা করার জন্য এসেছে । সন্দ্ব্যা সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত সময়ে থানায় মামলা করা হয়নি বলে ডিউটি অফিসার এস আই দেলোয়ার হোসেন জানান । যুবলীগ নেতা রাজুর উপর হামলার ঘটনার পর রাউজানের হলদিয়ায় চরম উত্তোজনা চলছে । এলাকার সাধারন মানুষ চরম আতংকের মধ্যে রয়েছে