রাউজানে ব্যবসায়ী খোকন খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

প্রকাশ:| রবিবার, ৭ জুন , ২০১৫ সময় ০৬:১৭ অপরাহ্ণ

rawjan 07-06-15রাউজানের উরকিরচর ইউনিয়নের আবুরখীল এলাকায় ব্যবসায়ী ইলিয়াছ প্রকাশ খোকনকে জবাই করে খুনের ঘটনায় জড়িত এক নারীসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার গভীর রাতে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- চান্দগাঁও থানার চৌধুরী পাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. হাবিবের ছেলে শেখ রাসেল (২২) ও টেকনাফের কলেজপাড়া এলাকার মৃত নুর বশরের মেয়ে লায়লা আক্তার (২৮)।

গ্রেপ্তারকৃতদের নিয়ে রোববার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া রাসেল ও লায়লা আক্তার এসময় খুনের ঘটনার বর্ণনা দেন।

ঘটনার বিবরণে তারা বলেন- বোয়ালখালীর চরণদ্বীপ এলাকার মোতালেব সিদ্দিকীর ছেলে আজাদ সিদ্দিকী (৩৮) তার স্ত্রী নাজু আক্তারকে নিয়ে নগরীর দক্ষিণ কোয়াইশ দোয়াল গাছতল এলাকায় বসবাস করতেন। তাদের বাসার পাশেই মুদি দোকান করতেন ব্যবসায়ী খোকন। ব্যবসায়ী খোকনের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠেছে অভিযোগ তুলে গত দেড় মাস আগে নাজুকে তালাক দেয় আজাদ সিদ্দিকী।

এর জের ধরে ব্যবসায়ী খোকনকে সিএনজি অটো রিকশায় তুলে নিয়ে রাউজানের উরকিরচর ইউনিয়নের আবুরখীল এলাকায় নিয়ে যায় আজাদ সিদ্দিকী ও আরো ৫জন। ঐ এলাকার বিলের মাঝে নিয়ে গিয়ে মারধর করে মাটিতে ফেলে দেয়া হয় খোকনকে। এসময় বুকের উপর বসে ছুরিকাঘাত করে খোকনের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে আজাদ। এসময় খোকনের দুই পা চেপে ধরে রাসেল।

হত্যাকান্ডে মোট ছয়জন অংশ নেয়। এর মধ্যে গ্রেপ্তারকৃত লায়লা ও তার ভাই জোহরও ছিল। ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে হত্যাকান্ডে অংশ নিয়ে খোকনকে ছুরিকাঘাত করে জোহর। এসব দেখে লায়লা বেগম চিৎকার দিলে তাকে স্বব্ধ করে দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে তারা।

চট্টগ্রামের অতিক্তি পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় মূল আসামিসহ জড়িত ৩জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’

প্রসঙ্গত গত ২৭ মে রাতে রাউজানের পশ্চিম আবুরখীল এলাকায় ইলিয়াছ প্রকাশ খোকন সওদাগরকে জবাই করে হত্যা করা হয়। গত ২৮ মে সকালে তার লাশ উদ্বার করে পুলিশ। নিহত ব্যবসায়ী খোকন নগরীর চান্দঁগাও এলাকার পশ্চিম মোহরার মৃত ইসমাইলের ছেলে। এ ঘটনায় গত ২৯ মে নিহত ব্যবসায়ী খোকনের স্ত্রী জোসনা আকতার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামী করে রাউজান থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।