রাউজানে বন্যায় ৫০ কোটি টাকার ক্ষতি, দুজনের মুত্যু

প্রকাশ:| বুধবার, ১৪ জুন , ২০১৭ সময় ০৭:২১ অপরাহ্ণ

আহত ৫০ জন ক্ষতিগ্রস্থ ২৭ হাজার ৫শত পরিবার ৩শত ঘর বাড়ী বিধস্থ 
শফিউল আলম, রাউজান ঃ রাউজানে বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি দুইজনের মুত্যু আহত ৫০ জন । বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ২৭ হাজার ৫শত পরিবার । ৩শত ঘর বাড়ী বিধস্থ ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ৫০ কোটি টাকা । ৩শত মাছ চাষের পুকুর ডুবে লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ পানিতে ভাসিয়ে নিয়ে যায় । গত ১২ ও ১৩ জুন প্রবল বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলের শ্রোতের পানিতে রাউজানের হলদিয়া ইউনিয়নের ঘর্জনিয়া এলাকার বাঘমারা টিলার বাসিন্দ্বা, নয়ন (১৬) ও কারগির বাড়ীর আবু তাহের (২০) পানির শ্রোতের পানিতে ভেসে গিয়ে নিহত হয় । হলদিয়ায় আরো পাচঁ জন আহত হয় । প্রবল বর্ষন পাহাড়ী ঢলের শ্রোতের পানিতে রাউজানের হলদিয়া ভিলেজ রোড, এয়াসিন শাহ সড়ক, দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী সড়ক, শহীদ জাফর সড়ক, ডাবুয়ার গনীর ঘাট সড়ক, রায় কিশোরী সড়ক, গোসাইর হাট সড়ক, দক্ষিন হিংগলা কলমপতি সড়ক, দক্ষিন হিংগলা শান্তি নগর সড়ক, নাগেশ্বর গার্ডেন সড়ক, চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি সড়ক, হাফেজ বজলুর রহমান সড়ক, শফিকুল ইসলাম চৌধুরী সড়ক, রাউজান নোয়াপাড়া সড়ক, আইলী খীল ওয়াহেদের খীল সড়ক, জগৎ ধর সড়ক, নন্দী পাড়া সড়ক, টান মিয়া চৌধুরী সড়ক, খান বাহাদুর আবদুল জব্বার চৌধুরী সড়ক, চিকদাইর তকির সড়ক, সাহেব বাড়ী সড়ক, আকবর শাহ সড়ক, পুর্ব রাউজান সুলতান আউলিয়া সড়ক, বামাচরন সড়ক সহ রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় সড়কের ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়ে সড়কের ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয় । প্রবল বর্ষন ও বন্যায় রাউজানের হলদিয়া, ডাবুয়া, চিকদাইর, বিনাজুরী, গহিরা, নোয়াজিশপুর ইউনিয়নের ও রাউজান পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় ৩শত মাছ চাষের পুকুরের মাছ পানিতে ভসিয়ে নিয়ে যায় । প্রবল বর্ষন পাহাড়ী ঢলের শ্রোতের পানিতে হালদা নদীর ভাঙ্গন বৃদ্বি পেয়েছে । সতঅ খাল ও ডবিুয়া খালের ভাঙ্গনে শতাধিক পরিবারের বসতঘর বিলিন হয়ে গেছে । রাউজানের উপর এলাকা থেকে বন্যার পানি নেমে গেলে ও রাউজানের নিম্ম এলাকায় বন্যার পানিতে এলাকার মানুষের বসতঘর, রাস্তাঘাট এখনো ডুবে রয়েছে । রাউজানের চিকদাইর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী ও ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সালাউদ্দিন জানান তার এলাকা চিকদাইর পাঠান পাড়া এলাকার শতাধিক ঘর বিধস্থ হয় । মাছ চাষের ২০ টি পুকুর পানিতে ডুবে পুকুরের মাছ পানিতে ভাসিয়ে নিয়ে যায় । এলাকার সব কয়টি সড়ক ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রন্থ হয় । রাউজানের ডাবুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুর রহমান চৌধুরী জানান, ডাবুয়ার ৯টি ওয়ার্ডের সড়ক ও এলাকার মানুষের ঘর বাড়ী ব্যাপক ক্ষতি হয় । নোয়াজিশপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সরোয়ার্দী সিকদার জানান প্রবল বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলের শ্রোতের পানিতে নদীমপুর ও ফতেহ নগর দুই গ্রাম এখনো পানির নিচে । সর্তা খালের ভাঙ্গন ও হালদা নদীর ভাঙ্গনে এলাকার সড়কের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় । রাউজান পৌরসভার প্যানে মেয়র বশির উদ্দিন খান ও পৌরসভার ২য় প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ জানান প্রবল বর্ষনে রাউজান পৌর এলাকার রাস্তাঘাট ব্যাপক ক্ষতি হয় । এলাকার পুকুর জলাশয় পানিতে ডুবে পুকুর ও জলাশয়ের মাছ পানিতে ভাসিয়ে নিয়ে যায় । এলাকার শতাধিক পরিবারের বসতঘর বিধস্ত হয় । গতকাল ১৪ জুন বুধবার রাউজানের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী শীর মোরশেদ ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় নির্বাহী প্রকৌশলী আবু তালেব চৌধুরী সহ উপজেলা প্রকৌশলী কাজী আকতার হোসেন, সাংসদ এবি এম ফজলে করিম চৌধুরীর প্রতিনিধি প্রকৌশলী কামাল উদ্দিন, রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজা, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি জোনায়েদ কবির সোহাগ । রাউজানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের জন্য দশ মেট্রিক টন চাউল এক লাখ টাকা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে বিতরন করা হয় । রাউজান উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি জোনায়েদ কবির সোহাগ বলেন রাউজানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের জন্য প্রদত্ত চাউল ও টাকা বিতরন করা হয় । রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজা জানান প্রবল বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলের শ্রোতে রাউজানে ৫০ কোটি টাকার বেশী ক্ষয়ক্ষতি হয় । রাউজান উপজেলা প্রকৌশলী কাজী আকতার হোসেন বলেন প্রবল বর্ষনে রাউজানে যে পরিমান সড়ক ক্ষতি হয়েছে তার পরিমান ২০ কোটি টাকা হবে । রাউজান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন আফিসার নিয়াজ মোরশেদ জানান প্রবল বর্ষনে রাউজানে ২৭ হাজার ৫ শত পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে । ৩শত ঘর বাড়ী ্িবধস্ত হয়েছে । কাচা রাস্তা ক্ষতির পরিমান ২০ কিলোমিটার, আধা পাকা রাস্তার ক্ষতির পরিমান ১৫ কিলোমিটার, পাকা রাস্তার ক্ষতির পরিমান ১০ কিলোমিটার । রাউজান উপজেলা মৎস অফিসার আমিনুর রহমান জানান প্রবল বর্ষন ও বন্যায় রাউজানে ৩শত পুকুর জলাশয়ের মাছ পানিতে ভাসিয়ে নিয়ে যায় ।


আরোও সংবাদ