রাউজানে কোরবানির গরু ছাগলের বাজার জম জমাট হয়ে উঠেছে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ০৭:৫৫ অপরাহ্ণ

g
শফিউল আলম, রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ রাউজানে কোরবানির পশুর বাজার জম জমাট হয়ে উঠেছে । রাউজান উপজেলার হলদিয়া আমির হাট, ডাবুয়া বাইন্যা হাট, মুছাশাহ বাজার, চিকদাইর হক বাজার গহিরা কালচান্দ চৌধুরী হাট, গহিরা চৌমুহনী, সুলতানপুর জানালী হাট, রাউজান ফকিরহাট বাজারের আদালত ভবণ, পশ্চিম রাউজান চারাবটতল বাজার, রমজান আলী হাট, নাতোয়ান বাগিচা, কদলপুর নুর আলীর মুন্সির হাট, ঈশান ভট্টের হাট, পাহাড়তলী ইউনিয়নের গৌরি শংকর হাট, বাগোয়ান ইউনিয়নের লাম্বুর হাট, গশ্চি নয়া হাট, নোয়াপাড়া ইউনিয়নের নেঅয়াপাড়া চৌধুরী হাট, ভ্রাম্বন হাট, উরকির চর ইউনিয়নের জিয়া বাজার, মাদুনাঘাট, আলা মিয়া বাজার, কেরানী হাট, পুর্বগুজরা ইউনিয়নের অলিমিয়ার হাট, পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের মগদাই বাজার, রঘুনন্দন চৌধুরী হাট, কাগতিয়া বাজার সমুহে কোরবানীর গরু ছাগলের বাজার জম জমাচ হয়ে উঠেছে । এসব হাট বাজার ছাড়া ও রাউজানের বাচা মিয়ার দোকান, উত্তর সর্তা, ঢেউয়া পাড়া, সাহানগর শরীফ বাড়ী এলাকা সমুহে কোরবানীর গরু এনে রেখে ব্যবসায়ীরা প্রতিদিন গরু বিক্রয় করছে । সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সময়ে বিক্রেতারা হাট বাজারে গরু ছাগল বিক্রয় করছে অবাধে । ক্রেতারা ও তাদের নিজ নিজ পছন্দের গরু ছাগল ক্রয় করে কোরবানীর জন্য ঘরে নিয়ে যাচ্ছে । রাউজান থানার ওসি এনামুল হক জানান, কোরবানীর গরু ছাগলের বাজারে পুলিশের সদস্যরা নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে । রাউজানের কোরবানীর গরু ছাগলের হাট ঘুরে দেখা যায়, বাজারে কোরবানীর জন্য বিক্রয়ের জন্য বেশীর ভাগ গরু সাতক্ষিরা, পাবত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ী এলাকা থেকে আসা গরু । এলাকার লালিত গরু ও রয়েছে । এলাকার মানুষের লালন করা গরু বাজারে বিক্রয় করার নিয়ে যাওয়ার আগে এলাকার লোকজন ক্রয় করদে দেখা যায় । হাটে বাজারে এলাকার লালিত গরুর সংখ্যা খুবই কম । পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র ভারত থেকে সীমান্ত দিয়ে আসা গরু রাউজানের হাট বাজা সয়লাব হয়ে পড়েছে । রাউজানের কিছু কিছু এলাকায় গরু ক্ষুরা রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে । রাউজানের দক্ষিন হিংগলার শান্তি নগর এলাকায় আজিম নামের এক ব্যবসায়ীর ক্রয় করা একটি গরু ও একই এলার্কা আবদুল কাদেরের একটি গরু ক্ষুরা রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে । দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কোরবানীর বাজারে বিক্রয় করার জন্য আনা ব্যবসায়ীদের গরুর ক্ষুরা রোগ রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে । রাউজান উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আবদুল মান্নান নিউজচিটাগাং২৪.কমকে জানান, ক্ষুরা রোগের প্রতিরোধে রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় ক্ষুরা রোগ প্রতিষেধক ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে প্রাণী সম্পদ বিভাগের সহকারী চিকিৎসকেরা । রাউজানে অনান্য এলাকার তুলনায় ক্ষুরা রোগে আক্রান্তের সংখা কম বলে জানান, রাউজান উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আবদুল মান্নান ।


আরোও সংবাদ