রাউজানে আ’লীগ সাধারণ সম্পাদককে দুষ্কৃতিকারীর হামলা, গুরুতর আহত

প্রকাশ:| বুধবার, ১৬ মার্চ , ২০১৬ সময় ১১:০৭ অপরাহ্ণ

জাহের আলম
শফিউল আলম, রাউজানঃরাউজানে বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক জাহের আলম রওশন ও তার স্ত্রী, পুত্রকে হত্যার চেষ্ঠায় গুরুতর আহত করেছে দু®কৃতিকারীরা। গুরুতর আহত রওশনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্ত্রী, পুত্ররা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। আহত জাহের আলম রওশন পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের আধার মানিক গ্রামের অলিমিয়া হাট এলাকা মৃত হেদু মিয়ার ছেলে। এই ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের পুরাতন রঘুনন্দন হাট এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। আহতের সঙ্গে থাকা স্ত্রী নিলুফা আকতার বলেন ‘সন্ধ্যা ৬টার দিকে আমি আমার স্বামী, ছেলে নোয়াপাড়া পথেরহাট থেকে সিএনজি টেক্্রীতে করে বাড়ি (আধার মানিক) ফিরছিলাম। এসময় সিএনজি টেক্্রীটি পুরাতন রঘুনন্দন হাট এলাকায় পরিকল্পিতভাবে পূর্বে থেকে লাটিসোটা ও লোহার রড নিয়ে ওঁৎ পেতে থাকা পূর্ব গুজরা আজগর আলী সিকদার বাড়ির (বর্তমানে পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের ইসলামাবাদ এলাকার বাসিন্দা) জুনু মিয়ার ছেলে আজগরসহ অজ্ঞাতনামা ১০-১২জন দু®কৃতিকারী গাড়ীটি গতিরোধ করে রওশন ও আমাদের নামিয়ে ফেলে। এরপর কিছু বুঝে উঠার আগেই দু®কৃতিকারী রওশনকে লাটিসোটা ও লোহার রড দিয়ে এলোপাথারি মারধর করে গুরুতর আহত করে। তার শরীরের বিভিন্নস্থানে জখম হয়ে যায়। এসময় আমি তাকে উদ্ধার করতে গেলে দু®কৃতিকারীরা আমাকে এবং আমার শিশু সন্তান সিয়াম (৫) কেও মারধর করে। পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে আহত রওশনকে প্রথমে নোয়াপাড়া পথেরহাটস্থ পাইওনিয়ার হাসপাতাল, পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। দু®কৃতিকারীরা আহতের নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। এই ঘটনার পর পূর্ব গুজরা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মহসিন রেজাকে খবর দিলে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। বিষয়টি থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে অবহিত করার পর তিনি মামলার রুজু করার পরামর্শ দেন। এব্যাপারে পূর্ব গুজরা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মহসিন রেজা ও পশ্চিম গুজরা ইউপি চেয়ারম্যান লায়ন সাহাবুদ্দীন আরিফ বলেন ‘হামলাকারী আজগরের নানা অশালিন আচারণ ও নানা অসৎ কর্মকান্ডের বিচার আগেও বেশ কয়েকবার করা হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে ।