রাউজানের সর্বক্ষেত্রে উন্নয়নই প্রমান করে দেশে আ’লীগ সরকারের বিকল্প নেই

প্রকাশ:| শনিবার, ১২ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:১৪ অপরাহ্ণ

ফজলে করিম এমপিনিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজানঃআওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে দেশে উন্নয়ন হয়। আর বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশে উন্নয়ন হয় না। এ থেকেই বুঝা যায় আগামিতেও এ সরকারকে ধরে রাখতে হবে। আর রাউজানের সর্বক্ষেত্রে যে উন্নয়ন, তাই প্রমানিত হয় আগামিতেও আওয়ামীলীগ সরকারের বিকল্প নেই। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি উপজেলার পূর্ব গুজরাস্থ হযরত মৌলনা শেখ আনছার আলী শাহ (রহঃ) সড়ক সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে বড়ঠাকুর পাড়ায় গতকাল (১২ অক্টোবর ২০১৩ইং) শনিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, এ সরকার আমলে রাউজানে ১২’শ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের সুফল উপজেলাবসি ইতিমধ্যে পেতে শুরু করেছে। আরো বেশ কিছু উন্নয়ন প্রকল্প শেষ হওয়ার পথে। যা এসরকার আমলেই শেষ হবে। আগামিতেও রাউজানবাসির উন্নয়নে ব্যাপক পরিকল্পনার কথা আমাদের আছে। এতে প্রয়োজন সকলের সহযোগিতা ও সমর্থন।
এছাড়াও সমাবেশে বক্তারা বলেন, রাউজানবাসির ভাগ্যন্নয়নে সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী এসেছেন আশিবার্দ স্বরূপ। আগামিতেও তাকে জয়যুক্ত করে রাউজানবাসির সূযোগ দেয়া এখন সকলের নৈতিক ও ঈমানী দায়িত্ব হয়ে দাড়িয়েছে।
১০নং পূর্ব গুজরা ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্বাস উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুসলিম উদ্দিন খান, লায়ন আদর্শ কুমার বড়–য়া, রাউজান থানার ওসি মো.এনামুল হক, পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ আবু হোসেন, এডভোকেট দিপক দত্ত, পূর্ব গুজরা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি এডভোকেট এম.আনোয়ার চৌধুরী, সাবেক প্রধান শিক্ষক রমজান আলী, প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিম, ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক চন্দন দে, সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল, আওয়ামী লীগ নেতা জসীম উদ্দিন, বকুল বড়–য়া, মাওলনা সেকান্দর আলী, ইলিয়াছ হোসেন, বড়ঠাকুর পাড়া বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হারুন, মাহাবুব আলম, সুমন দে, সিরাজুল হক, শিক্ষক স্বপন কান্তি দে, হাজী আবদুল সহিদ, জমির উদ্দিন, মনা বৈদ্য, সাংবাদিক তৈয়ব চৌধুরী, রমজান আলী, ইউপি সদস্য মোহাম্মদ ইলিয়াছ, নাছের উদ্দিন, জাহেদুল আলম, যুবলীগন নেতা আব্বাস উদ্দিন, আবদুল কাইয়ুম, হাজী মুক্তল হোসেন, লেদু মাতবর।
উল্লেখ্য মৌলানা শেখ আনছার আলী শাহ সড়ক সেতু স্বাধিনতার আগে ও পরবর্তী সময়ে এলাকাবসির বদন্যতায় এটি কোন সময় বাশেঁর সাকোঁ, কোন সময় তাল গাছের ও কাঠের সাকোঁ ছিল, সর্বশেষ সেচ্ছাশ্রমে লোহার পাতের তৈরী হলেও এটি জরাজীর্ন হয়ে মরার উপর করার ঘা হয়ে দাড়ায়। এ দূর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধিনে এ সেতু স্থাপন ও উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এলাকার জনসাধারণের যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত সূচিত হয়েছে। এতে পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের কয়েক হাজার লোক দুর্ভোগ থেকে পরিত্রান পেয়েছে।
এছাড়াও প্রধান অতিথি একইদিন একই গ্রামে হাজী নুর হোসেন কমিউনিটি ক্লিনিক, হোয়ারাপাড়া অগ্রসার প্রাথমিক বিদ্যালয় নবনির্মিত ভবন, সেরেঙ্গাখাল সেতু ও নতুন বাজার সড়কের কার্পেটিংয়ের উদ্বোধন ও আধার মানিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রী পরিষদের সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।