রাউজানের প্রেমের ফাদেঁ ফেলে এক কিশোরীকে ধর্ষণ

প্রকাশ:| শনিবার, ১৭ আগস্ট , ২০১৩ সময় ০৯:৩৩ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম >>
ধর্ষণরাউজানের এক যুবক প্রেমের ফাদেঁ ফেলে মিরশ্বরাইয়ের এক কিশোরীকে ফোন করে এনে ধর্ষন তার সহযোগীরা সহ । রাউজান উপজেলার ১৫ নং নোয়াজিশ পুর ইউনিয়নের নোয়াজিশ পুর খোন্দকার বাড়ীর হবিবউল্লাহর পুত্র ফতেহ নগর অদুদিয়া মার্দ্রাসার আলিম প্রথম বর্ষের ছাত্র মেজবাউল মোকরাবিন (২০) চট্টগ্রামের মিরশ্বরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ চুন্নু মির্জির টেক এলাকার কলেজ ছাত্রীর সাথে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তোলে । দুইজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কে জের ধরে প্রেমিক মেজবাউল ফোন করে প্রেমিকা কিশোরীকে মিরশ্বরাই থেকে চট্টগ্রাম শহরে আসার কথা বললে, প্রেমিক মেজবাউলের ডাকে সাড়া দিয়ে প্রেমিকা কিশোরী গত ১৬ আগষ্ট শুক্রবার সকালে বাড়ী থেকে ছুঠে আসে প্রেমিক মেজবাউলের কাছে । প্রেমিক মেজবাউল কিশোরীকে সীতাকুন্ড এলাকার ভাটিয়ারী থেকে নিয়ে হাটহাজারীর বড় দিঘির পাড় এলাকায় নিয়ে আসেন । বড়দিঘির পাড়া এলাকায় মেজবাউলের বাড়ীর সিএনজি চালক হুমায়ুন তার সিএনজি নিয়ে বসে থাকে পুর্ব থেকে । গত শুক্রবার দিবাগত রাতে হুমায়ুনের সিএনজি বেবী টেক্সী করে প্রেমিক মেজবাউল তার প্রেমিকা কিশোরীকে নিয়ে রাউজানের চিকদাইর চুনতি পাড়া এলাকায় নির্জন স্থানে নিয়ে এসে রাতে কিশোরীকে মেজবাউল ও তার সহযোগীরা ধর্ষন করে । এলাকার লোকজন টের পেয়ে মেজবাউল ও তাদের সহযোগীদের ধাওয়া করে প্রেমিক মেজবাউল, সিএনজি চালক হুমায়ুন সহ ধর্ষিতা কিশোরীকে আটক করে। এসময় মেজবাউলের অনান্য সহযোগীরা জনতার ধাওয়ার মুখে পালিয়ে যায় । জনতা র্ধষিতা কিশোরী সহ তার প্রেমিক মেজবাউল, সিএনজি চালক হুমায়ুনকে স্থানীয় চেয়ারম্যান কাজী দিদারুল আলমের কাছে সোর্পদ করেন । স্থানীয় চেয়ারম্যান কাজী দিদারুল আলম ধর্র্ষিতা কিশোরী সহ ধর্ষক মেজবাউল, সিএনজি চালক হুমায়ুনকে রাউজান থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেন । রাউজানের চিকদাইর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী দিদারুল আলম জানান, নোয়াজিশ পুর এলাকার একদল বখাটে যুবক এক কিশোরীকে চিকদাইর এলাকায় এনে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে গণধর্ষন করেন । এলাকার লোকজনের সহায়তায় র্ধষিতা কিশোরী সহ দুই ধর্ষককে ধরে রাউজান থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে বলে চয়ারম্যান কাজী দিদারুল আলম জানান । রাউজান থানার ওসি এনামুল হক জানান, ধর্ষিতা কিশোরী ও দুই ধর্ষককে থানায় আটক রাখা হয়েছে । এই ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে ওসি এণামুল হক জানান


আরোও সংবাদ