রাউজানের নোয়াপাড়ায় জায়গা জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যার প্রচেষ্টা

প্রকাশ:| বুধবার, ৫ ফেব্রুয়ারি , ২০১৪ সময় ০৮:৪৬ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধি :
রাউজানের নোয়াপাড়ায় জায়গা জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যার প্রচেষ্টা । রাউজান উপজেলার নোয়াপড়া ইউনিয়নের খলিফা পাড়া এলকায় গত মঙ্গলবার সকাল ১১টার সময় এ ঘটনা সংঘঠিত হয় । হামলার ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে রাউজান উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের কচুখাইন গ্রামের হাজী সৈয়দ আহাম্মদের বাড়ীর মৃত আলী আহম্মদের পুত্র নুরুল আলমের সাথে পার্শ্ববতী খলিফা পাড়া এলাকার আজাদ,জাবেদের সাথে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলৈ আসছিলো । জয়গা জমির বিরোধের জের ধরে গত মঙ্গলবার সকাল ১১ টার সময় নুরুল আলম( ৪৫) তার বাড়ী থেকে নোয়াপাড়া যাওয়ার পথে খলিফা পাড়া এলাকায় আজাদ ও জাবেদের বাড়ীর সামনে আসলে, জাবেদ ও আজাদ অতর্কিতভাবে ধারালো কিরিচ দিয়ে নুরুল আলমকে এলোপাতারী কুপিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে নুরুল আলমের বড় ভাই সুলতান আহম্মদ ভাইকে রক্ষা করতে আসলে তাকে ও মারধর করে । ঘটনার পর রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ টুটন মজুমদার ঘটনাস্থলে এসে হামলাকারী আজাদ ও জাবেদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন । মারাত্বক ভাবে আহত নুরুল আলমকে প্রথমে নোয়াপাড়া পাইনিওয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনেরা চিকিৎসার জন্য । নুরুল আলমের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় । বর্তমানে নুরুল আলম চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৯ নং ওয়ার্ডের ৫৪ নং শর্য্যায় চিকিৎসাধিন রয়েছে । তার অবস্থা আশংকাজনক বলে তার ভাই নুরুল আবছার জানান । গতকাল বুধবার সন্দ্বায় ঘটনার ব্যাপারে আহত নুরুল আলমের ভাই বাদী হয়ে রাউজান থানায় মামলা করেন । ঘটনার ব্যাপারে রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাড়ীঁর ইনচার্জ জানান, ঘটনার পর হামলাকারী আজাদ ও জাবেদকে আটক করি । গতকাল বুধবার দুপুর পর্যন্ত কোন মামলা না দেওয়ায় তাদের দুইজনকে ১৫১ ধারায় আদালতে সোর্পদ করা হয় । নোয়াপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব দিদারুল আলম বলেন নুরুল আলমকে কুপিয়ে হত্যার প্রচেষ্টার ঘটনা সত্য ।